About Me

header ads

দীপাবলির সময় স্থানীয় কারিগরদের কাছ থেকে সামগ্রী কেনার বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী!

ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ গড়ে উঠছে আত্মনির্ভর ভারত! ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ব্যবসা থেকে বড়, সবেতেই ভোকাল ফর লোকালে জোর। দীপাবলির সময় তাঁতি, কারিগর এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে স্থানীয় পণ্য সামগ্রীর বিক্রয়কে উত্সাহিত করার জন্যে সোমবার সকালে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব লোকাল পণ্যগুলির প্রচার করেছেন।
ভারত জোর দিচ্ছে দেশীয় সামগ্রী তৈরিতে। আত্মনির্ভর হওয়াই মূল লক্ষ্য। মুখ্যমন্ত্রী স্থানীয় কারিগর এবং স্থানীয় কর্মীদের সঙ্গে সরকারি বাসভবনে সাক্ষাৎ করেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব স্থানীয় কারিগর এবং নির্মাতাদের কাছ থেকে সমস্যা, বিপণনের সুযোগ এবং অন্যান্য বিষয়গুলি সম্পর্কে ভালোভাবে খোঁজ নেন। মূলত আজ সকালে বিপ্লব এসএইচজি (Self Help Group) সদস্যদের সাথে সাক্ষাৎ করেন।
এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আসুন আমরা আমাদের প্রিয় উৎসব দীপাবলি স্থানীয়ভাবে উদযাপন করি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভোকাল ফর লোকালে গুরুত্ব দিয়ে রাজ্যকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। এবং প্রধানমন্ত্রীর ডাকে অনুপ্রাণিত হয়ে আসুন আমরা স্থানীয় কারিগর ও ব্যবসায়ীদের আমাদের পূর্ণ সমর্থন বাড়িয়ে তুলি।"
তিনি আরো বলেন, আমরা দীপাবলিতে বাড়ি আলোকিত করার জন্যে প্রদীপ বা মোমবাতি কিনবো। এবং প্রিয়জনদের জন্যেও কিনবো উপহার। স্থানীয় কারিগরদের থেকে জিনিস কেনা হবে সবচাইতে ভালো। স্থানীয়ভাবে তৈরি জিনিস ক্রয় করে আমরা স্থানীয় কারিগরদের সর্বাধিক সমর্থন প্রদর্শন করব। যোগ করেন মন্ত্রী। "যখন গোটা বিশ্ব COVID-19 এর অন্ধকারে ডুবে আছে, সে সময় আমরা প্রত্যেকে একত্রিত হয়ে আমাদের স্থানীয় কারিগর এবং তাঁতিদের বাড়িতে প্রত্যাশার বাতি জ্বলছে এবং আরো জ্বালাতে সাহায্য করবো
ভোকাল ফর লোকাল! বর্তমান ভারতে এটিই হচ্ছে মূলমন্ত্র। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব আজ, সোমবার স্থানীয়ভাবে তৈরি শাড়ি, বিছানার চাদর, লোকাল পোশাক, লোকাল তৈরি উপহার ইত্যাদি সবকিছুই পর্যবেক্ষণ করেছেন।
এর আগে ত্রিপুরায় বাঁশ দিয়ে প্রদীপ তৈরি করা হয়েছে। স্ব-সহায়ক গোষ্ঠীর তৈরি বাঁশের প্রদীপ বাজারজাতকরণের সূচনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। স্ব-সহায়ক গোষ্ঠীর প্রশংসা মন্ত্রী বিপ্লবের মুখে। বলেন, আজ সত্যই প্রধানমন্ত্রী মোদির ভোকাল ফর লোকাল স্লোগান সফলতা পেল। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জিনিস তৈরির মধ্য দিয়েই আত্মনির্ভর ভারত গড়ে উঠবে, সফল হবে মোদির স্বপ্ন।
ত্রিপুরার সিপাহিজলার নলছড় এলাকায় স্ব-সহায়ক গোষ্ঠী বাঁশ দিয়ে অসাধারণ এই প্রদীপ তৈরি করেছে। এই সৃষ্টি দেখে রীতিমতো চমকে গেছেন মুখ্যমন্ত্রীও। সচিবালয়ে মুখ্যমন্ত্রীর হাত দিয়েই বাজার জাতকরণের সূচনা হয়েছে। গোষ্ঠীকে সাহায্য করাসহ অর্থনৈতিক দিক দিয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে রাজ্য সরকার। দেশ এভাবেই এগিয়ে যাবে।
মুখ্যমন্ত্রী এদিন যথেষ্ট প্রশংসা করেছেন এই গোষ্ঠীর। মুখ্যমন্ত্রীর দাবী, ত্রিপুরায় বিজেপি-আইপিএফটি জোট সরকার গঠন হওয়ার পর স্ব-সহায়ক গোষ্ঠীগুলো সফলতার মুখ দেখছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য