About Me

header ads

প্রেমে প্রতারিত হয়ে আত্মঘাতী নাবালিকা, শোকসন্তপ্ত এলাকা!

ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ মেয়েটি মাত্র ক্লাস নাইনে পড়ত। কিন্তু গত রাতেই তার এই ছোট্ট জীবনের সাঙ্গ হয়ে যায়। আবদুল হালিমের মেয়ে সোমা আক্তার মারা গেছে। ভোর সাড়ে তিনটা নাগাদ বাড়ির লোকেরা সোমাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। একটি ছেলের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তার পড়ার বইয়ের ভিতর সুইসাইড নোটটি পাওয়া গিয়েছে।
সুইসাইড নোট বলছে, ছেলেটি সম্প্রতী তাকে উপেক্ষা করা শুরু করেছিল। এই প্রতারণা সহ্য করতে পারেনি মেয়েটি। মেয়েটি সহজে তার প্রেমিকের এই মনোভাব নিতে পারেনি। অবশেষে আত্মহত্যা করে শেষ করে দেয় নিজের জীবন। তার বাবা আবদুল হালিম জানান, মেয়েটির বয়স ছিল মাত্র ১৪ বছর। সে নবম শ্রেণিতে পড়াশোনা করছিল। শোকাবহ এই ঘটনায় পরিবারের সবাই হতবাক হয়ে পড়েছেন।
এলাকাবাসীর বক্তব্য, দশম শ্রেণীর পড়ুয়া এক নাবালকের সাথে ঐ নাবালিকার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তাদের সম্পর্ককে সহজভাবেই নিয়েছিলেন সকলে। মৃত্যুর আগে ঐ নাবালিকা একটি সুইসাইড নোট লিখে রেখে গিয়েছে। সেখানে মা-বাবা-ভাই-বোনদের কাছে ক্ষমা চাওয়ার পাশাপাশি তার প্রেমিকের প্রতি গভীর ভালোবাসার পরিচয় রেখে গেছে।
সুইসাইড নোটের লেখাগুলো কাঁপিয়ে দিয়েছে অন্তর। সুইসাইড নোটে মেয়েটি প্রেমিককে অনুরোধ করেছে, এক মুঠো মাটি নিয়ে তার কবরে যেন সে যায়। নয়তো আমার প্রাণ শান্তি পাবে না। মেয়েটি তার ভাইকেও কবরে মাটি দেওয়ার অনুরোধ করে।
মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে বিশালগড়ের আরালিয়া গ্রামে সিপাহিজলা জেলায়। বিশালগড় থানার পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। পুলিশ মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দিয়েছে। ঘটনায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু হয়েছে। এলাকায় গভীর শোকের ছায়া নেমে আসে মর্মন্তুদ এই ঘটনায়। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য