About Me

header ads

থানার ব্যারাকে পুলিশ কর্মীর মৃত্যু ঘিরে শোক!

ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ থানার ব্যারাকে মৃত্যু হল এক পুলিশকর্মীর। মৃতের নাম  অনিল কৃষ্ণ দাস। বয়স ৫৮। বাড়ি বিশালগড় থানার অন্তর্গত সেকের কোট এর পান্ডপপুৱ এলাকায়। জানা গেছে মঙ্গলবার ভোর চারটা থেকে ছয়টা পর্যন্ত বিশালগড় থানার রক্ষীর দায়িত্বে ছিলেন। নিজ দায়িত্ব শেরে ব্যারাকে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। অনেকক্ষণ পর সহকর্মীরা তাকে ডাকাডাকি করলে তিনি আর সাড়া দেননি। সঙ্গে সঙ্গে এক সহকর্মী থানায় গিয়ে বিষয়টি জানান।
ছুটে আসেন  ওসি দেবাশীষ সাহাসহ অন্যান্য পুলিশ আধিকারিকরা। সবাই মিলে তাকে ডাকাডাকি এবং নাড়াচাড়া  করলেও কোন সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি। তখনই বুঝতে পারেন পুলিশকর্মী অনিল কৃষ্ণ দাসের মৃত্যু হয়েছে। এ খবর পেয়ে ছুটে আসেন বিশালগড় মহকুমা পুলিশ আধিকারিক এবং জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। খবর দেওয়া হয় মৃতের বাড়িতেও। বেলা সাড়ে ১১ টায় তাকে নিয়ে যাওয়া হয় বিশালগড় মহাকুমা হাসপাতালে।  কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে দেখে মৃত বলে ঘোষণা করে পাঠিয়ে দেন লাশকাটা ঘরে। বিশালগড় মহাকুমা ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে করা হয় ময়নাতদন্ত।
থানার একটি মহল জানিয়েছে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়নি। যদি না হতো হয়তোবা  চিকিৎসকের প্রচেষ্টায় প্রাণও ফিরে পেতে পারতো সে। এ নিয়ে থানার  অভ্যন্তরেই চলছে গুঞ্জন। তবে হাসপাতালের  প্রাথমিক সূত্রে জানা গেছে হূদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে পুলিশকর্মী অনিল কৃষ্ণ দাসের। মৃত্যুকালে স্ত্রী দুই পুত্র এবং এক কন্যাসহ অসংখ্য গুনমুগ্ধ পরিজন রেখে গেছেন তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য