About Me

header ads

আত্মহত্যায় প্ররোচনা মামলায় গ্রেপ্তার অর্ণব গোস্বামী, প্রতিবাদে মুখর বিজেপি!

ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ গ্রেফতার রিপাবলিক টিভি-র প্রধান সম্পাদক অর্ণব গোস্বামী। ৫৩ বছরের এক ইন্টিরিয়র ডিজাইনারের আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে। বুধবার সকাল ৬ টায় তাঁকে বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে মুম্বই পুলিশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, পুলিশ ভ্যানে করে নিয়ে যাচ্ছে অর্ণব গোস্বামীকে। এর পরই টুইট করে গ্রেফতারের নিন্দা করেছেন, প্রকাশ জাভড়েকর এবং স্মৃতি ইরানির মতো কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা।
২০১৮-র মে মাসে আত্মহত্যা করেন ৫৩ বছরের ইন্টিরিয়র ডিজাইনার অন্বয় নাইক ও তাঁর মা কুমুদ নাইক। তাঁর লেখা সুইসাইড নোটে অর্ণব গোস্বামী ছাড়া আরও ২ জনের নাম ছিল। তাঁরা হলেন ফিরোজ শেখ ও নীতেশ সারদা। তাঁরা ৫ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা দেননি বলে নোটে অভিযোগ করেছেন অন্বয়। সেই টাকা না পেয়ে আর্থিক সমস্যায় পড়েছিলেন তিনি। অন্বয় কনকর্ড ডিজাইনার প্রাইভেট লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ছিলেন। রিপাবলিক টিভির হয়ে কাজও করেছিল অন্বয়ের সংস্থা। কিন্তু রিপাবলিক সেই টাকা মেটায়নি বলে অভিযোগ ছিল অন্বয়ের।

অন্বয়ের মৃত্যুর পর আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার একটি মামলাও রুজু হয়েছিল। কিন্তু ২০১৯-এ সেই মামলা বন্ধ করে দেয় রায়গড় পুলিশ। কিন্তু ২০২০-র মে মাসে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ একটি টুইট করেন। সেখানে তিনি লেখেন, অন্বয়ের মেয়ে আমার কাছে অভিযোগ করেছেন রিপাবলিক টিভির টাকা না দেওয়ার বিষয়টি আলিবাগ পুলিশ ঠিক মতো তদন্ত করেনি। সিআইডি-কে ওই মামলাটি পুনরায় তদন্ত করার নির্দেশ দিচ্ছি
গ্রেফতার করতে গিয়ে অর্ণবকে মুম্বই পুলিশ নিগ্রহ করেছে বলে নিজেদের প্রতিবেদনে দাবি করে রিপাবলিক চ্যানেল। কেন্দ্রের শীর্ষ স্থানীয়  কয়েক জন মন্ত্রীও অর্ণবের গ্রেফতারির নিন্দা করেছেন। গ্রেফতারির পরই বিষয়টি নিয়ে টুইট করেছেন প্রকাশ জাভড়েকর, স্মৃতি ইরানি, এস জয়শঙ্করের মতো মন্ত্রীরা। মহারাষ্ট্রে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা খর্ব করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা।

কিছুদিন আগেই টিআরপি জালিয়াতি কাণ্ডে অভিযোগ উঠেছিল রিপাবলিক টিভির বিরুদ্ধে। তার পরই অর্ণবের গ্রেফতারি নিয়ে আঙুল ওঠে শিবসেনা সরকারের দিকে। কিন্তু সেই অভিযোগ নাকচ করেছেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত। তিনি বলেছেন, ‘‘মহারাষ্ট্রে আইনের পালন হয়। কারও বিরুদ্ধে প্রমাণ থাকলে পুলিশ ব্যবস্থা নেয়।’’ উদ্ধব ঠাকরের সরকার কারও প্রতি প্রতিশোধ নিতে কোনও পদক্ষেপ করে না বলেও দাবি করেছেন তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য