About Me

header ads

রাজ্যে আকস্মিক বাড়লো মেডিকেল কোর্সের ফি, মন ভাঙছে পড়ুয়াদের!

ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ যত মেধাবীই হোন না কেন, যদি সেই পড়ুয়া দরিদ্র পরিবারের হয়ে থাকেন, তাহলে তাঁর ভবিষ্যৎ ভেবে নিতে হবে সেখানেই সমাপ্ত! এমনই এক বেদনাদায়ক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে চারদিকে।

ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডাক্তার হতে গেলে আপনাকে এখন ৫৪ লক্ষ টাকারও বেশি খরচ করতে হতে পারে। কলেজ কর্তৃপক্ষ এ বছর থেকে মেডিকেল ফি বাড়িয়ে ১৪ লক্ষেরও অধিক করেছে। এ অবস্থায় খুব স্বাভাবিকভাবেই মন ভাঙছে তাঁদের, যারা ভেবে রেখেছিলেন টিএমসি থেকে এমবিবিএস করবেন।

নতুন ফি স্থায়ী প্রবেশ কমিটি নির্ধারণ করেছে । ১০০ সিটের ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজটি পশ্চিম ত্রিপুরা জেলার হাপানিয়ায় অবস্থিত। স্থাপিত হয় ২০০৫ সালে। বর্তমানে রাজ্যে দুটি মেডিকেল কলেজ রয়েছে। একটি আগরতলা সরকারি মেডিকেল কলেজ (এজিএমসি) এবং অন্যটি ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজ (টিএমসি)। এর আগে ২০১৮ সালে একবার ত্রিপুরা মেডিকেল কোলাজ (টিএমসি) এর ফি বৃদ্ধি করা হয়েছিল, সে সময় এই ফি ১৯ লক্ষ টাকারও অধিক বৃদ্ধি করা হয়েছিল। দু-বছর পর আবার ২০২০ সালে সেই ফি বাড়নো হয়েছে। ঘটনায় উদ্বিগ্ন সচেতন মহল। এবার যারা পড়াশোনার জন্যে ভর্তি হবেন তাঁদের গুণতে হবে কড়কড়ে ৫৪ লক্ষ টাকারও বেশি।

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের আগে বামফ্রন্টের আমলে ফি ছিল ২০.১৭ লাখ টাকা। কিন্তু বিজেপির সময় অভূতপূর্বভাবে এই ফি বৃদ্ধি প্রকৃতপক্ষে ছাত্রী-ছাত্রদের দিশেহারা করে ফেলছে। উল্লেখ্য যে, ২০১৮ সালে ফি বাড়ানো হলেও বিষয়টি বিধানসভায় উত্থাপিত হয়েছিল। বিরোধী সিপিআই (এম) ফি বাড়ানোর বিষয়টিতে আপত্তি জানায়। তখন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছিলেন সুদীপ রায় বর্মন।

সিপিআই (এম) বিধায়ক সুধন দাসের নোটিশের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছিলেন যে সুপ্রিম কোর্টের আদেশ অনুসারে প্রত্যেক বেসরকারী মেডিকেল কলেজকে হাইকোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারকের তত্ত্বাবধানে ফি নিয়ে একটি কমিটি গঠন করতে হবে। ত্রিপুরা মেডিকেল কলেজও এর ব্যতিক্রম নয়।

ভয়ানকভাবে এই ফি বৃদ্ধি নিয়ে ছাত্র সংগঠনের চড়া সুর ফের শোনা যাচ্ছে। সন্দীপন দেব, (ত্রিপুরা এসএফআই সেক্রেটারি) সন্দীপন দেব এই ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানিয়েছেন। ফি বৃদ্ধির জন্য রাজ্যের বিজেপি-আইপিএফটি জোট সরকারের নিন্দা করেন তিনি।

উল্লেখ্য যে, সরকারের দ্বারা পরিচালিত আগরতলা সরকারি মেডিকেল কলেজে পড়াশুনার জন্য প্রতি বছর ১.২৫ লক্ষ টাকা প্রয়োজন হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য