About Me

header ads

এক দিনের বিধানসভা অধিবেশনে বাদ প্রশ্নোত্তর পর্ব!

ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ Covid-19 মহামারি পরিস্থিতির মধ্যেই ২১ সেপ্টেম্বর ত্রিপুরা বিধানসভার এক দিনের অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। আজ অনুষ্ঠিত হল তার বিজনেস অ্যাডভাইজারি কমিটি বা BAC মিটিং।

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা অভিবেশনের আগে বা অসমে বিধানসভা অধিবেশনের আগে যেমন ভিতরে প্রবেশপত্র পাওয়া মন্ত্রী, বিধায়ক, কর্মী, সাংবাদিক সকলের অ্যান্টিজেন পরীক্ষা বাধ্যতামূলক ছিল, ত্রিপুরায় সেই ব্যবস্থা থাকছে না। ঢোকার সময়ই শুধুই প্রাথমিক স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা থাকবে।

আজ মতানৈক্যের জেরে বিএসি বৈঠক ছেড়ে ওয়াক আউট করেন সিপিআইএম বিধায়ক তপন চক্রবর্তী ও সুধন দাস। তপন চক্রবর্তী পরে বলেন, তাঁদের মতোর সঙ্গে উপদেষ্টা কমিটির মত মেলেনি। তাই তাঁরা বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান। সুধন দাস বলেন, এক দিনের অধিবেশন থেকে প্রশ্নোত্তর পর্বকে বাদ রাখা হয়েছে। এক দিনের মধ্যে বিধানসভায় পেশ করা হবে ৯টি বিল। এবং সরকারের পরিকল্পনা, এক দিনের মধ্যে কোনও আলোচনা বা বিতর্কের অবকাশ না রেখে বিলগুলি পাশ করানো হবে। কারণ ৯টি বিল নিয়ে কোনও ভাবেই এক দিনের মধ্যে আলোচনা সারা সম্ভব নয়। এই মতান্তরের জেরেই তাঁরা বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে আসেন।

এ দিকে পরিষদীয় মন্ত্রী রতন লাল নাথ বলেন, সিপিএম (CPIM) বিধায়কেরা আসলে কোনও খবরই রাখেন না। দেশের অন্য অনেক বড় রাজ্যের মতোই ত্রিপুরায় এক দিনের বিধানসভা অধিবেশন ডাকা হয়েছে। স্বভাবতই প্রশ্নোত্তর পর্ব রাখার প্রশ্নই ছিল না। করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন, দীর্ঘ সময় ধরে অধিবেশন চালানো সম্ভব নয়।

আজ উপেদষ্টা কমিটির বৈঠকের আগে প্রধান সচিব ও সদস্যরা বিধানসভা ভবন ঘুরে দেখেন। সামাজিক দূরত্ব ও সব ধরণের স্বাস্থ্যবিধি মেনে কী ভাবে বিধানসভা চালানো সম্ভব তা নিয়ে আলোচনা হয়। এবারের অধিবেশনে দর্শক বা ভিজিটার্স গ্যালারি থাকছে না। বিধানসভার কর্মী সংখ্যাও যথাসম্ভব কম রাখা হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য