About Me

header ads

উত্তর ত্রিপুরার অজয় নাথ হত্যা মামলার পাঁচ অভিযুক্ত পুলিশি রিমান্ডে!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ রবিবার বিশেষ আদালত সিজেএম অজয় নাথ হত্যা মামলার পাঁচ প্রধান আসামিকে তিন দিনের পুলিশ রিমান্ডে প্রেরণ করেছে। আসামিদের আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধর্মনগর থানায় নেওয়া হয়। অভিযুক্তরা হলেন অজয় নাথ, গৌরাঙ্গ নাথ, লিটন নাথ, নগেন্দ্র নাথ, গোপাল নাথ।
স্মরণীয় যে, উত্তর ত্রিপুরা জেলার ধর্মনগর মহকুমা অন্তর্গত উত্তর গঙ্গানগর ৩ নং ওয়ার্ড ৩০ আগস্ট, রবিবার রাতে এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। উক্ত নিহত যুবকের নাম অজয় নাথ। তাঁর বয়স ৩৫। মৃত যুবকের লাশ তাঁর বাড়ি থেকে ৩০০ মিটার দূরে পড়েছিল।
ঘটনাসূত্রে জানা গেছে যে, রাস্তার বিষয়ে বছর ৩৫ এর যুবক অজয় নাথের সাথে তাঁর এলাকারই আরো ৪-৫ জন যুবকের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়েছিল।
জানা যাচ্ছে, যাঁদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছিল অজয় নাথের সেই যুবকেরাই অজয় নাথকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দিচ্ছিল। একটা বিপদজ্জনক সময় কাটাচ্ছিলেন অজয় নাথ। এটি বেশ কয়েকদিন আগের ঘটনা এবং এই ঘটনার পরই অত্যন্ত রহস্যজনকভাবে রবিবার রাত তখন সাড়ে নটা থেকে ১০ বাজে। অজয় নাথের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। লাশটি পড়ে ছিল যুবকের বাড়ি থেকে মাত্র ৩০০ মিটার দূর একটি এলাকায় রাস্তার পাশে।
সেখানে লোকজনের ঘরবাড়িও আছে। অর্থাৎ জমজমাট একটি এলাকায় শত্রুরা তাঁকে হত্যা করে মেরে ফেলে রেখে গেছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বাগবাসা আউটপোস্ট এর পুলিশ অজয় নাথের মরদেহ দ্রুত উদ্ধার করে। এরপরই অজয় নাথ এর দেহ ধর্মনগর জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ। অজয় নাথের মৃতদেহ উত্তর জেলা হাসপাতালে পোস্টমর্টেম করার পর বাগবাসা আউটপোস্ট পুলিশ মরদেহ পরিবারের হাতে তুলে দিয়েছিল।
৩০ আগস্ট অজয় নাথের মরদেহ উদ্ধার করা হয়! ৩১ আগস্ট উত্তর ত্রিপুরা জেলার ধর্মনগর মহকুমার অধীনে আইপিসি ১২০ (খ) / ৩০২ এর ১০২/২০২০ মামলা অনুযায়ী বাগপাসা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। আসামিদের এত দিন পরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এবং তাদের আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধর্মমনগর থানায় রাখা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য