About Me

header ads

রাজ্যে হাতি লেলিয়ে মানুষ খুন করা মাহুত গ্রেফতার!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ অবশেষে গ্রেফতার হলো উত্তর ত্রিপুরা জেলার দাম ছড়াতে হত্যাকাণ্ডে প্রধান অভিযুক্ত রহিম আলী। উত্তর ত্রিপুরা জেলার দাম ছড়াতে ফিল্মি কায়দায় একই পরিবারের তিন জনকে প্রাণে মারার চেষ্টা করেছিল হাতির মাহুত রহিম আলী।
মা-মেয়েকে চিকিৎসার জন্যে ধর্মমনগর জেলা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তাঁদের কাছ থেকেই জানা যায় হাতিতে পিষে তিনজনকেই মারার চেষ্টা করেছিল এক মাহুত। তার সঙ্গে দুটি হাতি ছিল। পুলিশ সন্দেহ করছে যে আসামি মেয়েটিকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করেছিল। বাধা পেয়ে হাতি লেলিয়ে দেয়।
এই ঘটনার পর হাতির মাহুত হাতি নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। মাঝপথে অবস্থা বেগতিক দেখে হাতি দুটিকে রাস্তার রেখে গা ঢাকা দেয় বলে অভিযোগ। তাকে খুঁজে বের করার জন্য ঊনকোটি ও উত্তর ত্রিপুরা জেলার পুলিশ চিরুনি তল্লাশি অভিযানে নামে। পুলিশকে সহযোগিতা করেন কৈলাশহর এর সমস্ত হাতির মালিকেরা।
অবশেষে আজ বিকাল সাড়ে তিনটেয় গৌরনগর আর ডি ব্লকের অন্তর্গত কৈলাসহরের ফুলবাড়ীকান্দি গ্রাম থেকে হাতির মাহুত রহিম আলীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। কৈলাশহরের ইরানি থানার ওসি আলমগীর হোসেন তাকে ধরেন। হাতির মাহুত কে গ্রেপ্তার করতে কৈলাশহর মহকুমা পুলিশকে সহযোগিতা করেছেন কৈলাশহর এলাকার হাতির মালিক আব্দুল হাদী, হামিদুল্লাহ এবং লিটন উদ্দীন। পুলিশ জানিয়েছে খুনে অভিযুক্ত রহিম আলীকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আগামীকাল আদালতে তোলা হবে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য