About Me

header ads

রাজ্যে মেয়েকে হুমকি দিয়ে ধর্ষণ বাবার!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ মেয়ে-বাবার পবিত্র সম্পর্ক; যে বন্ধন; তা নষ্ট করে ফেলছে বিকৃত মানসিকতার পুরুষরা! পুরুষতান্ত্রিক সমাজে কামুক পুরুষের কাছে নারী মানেই ভোগ্য বস্তু! এই সমাজে বাবার কাছেও মেয়ের সম্মান নেই। ঘরের চৌকাঠ পেরনো তো দূরের কথা, নিজের ঘরেই মেয়েরা নিরাপদ নয়। ঘরের কোন পুরুষ সদস্যের কাছেই কন্যা সন্তান নিরাপদ নয়!
মাবনসমাজকে লজ্জানত করা ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছে ত্রিপুরার উনকোটি জেলার অন্তর্গত কৈলাসহর পৌরসভা এলাকার! গত ১ বছর ধরে হুমকি দিয়ে ভয় দেখিয়ে নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করছে তারই বাবা! এতদিন ধরে মেয়েটি চুপ করে থাকতে বাধ্য হয়েছে শুধু ভয়ে! কিন্তু আর নয়, এবার ১৭ বছরের মেয়েটি সাহস করে বাবার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছে!
সোমবার এই ঘটনার খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে! ধর্ষণ ঘটনার খবর পেয়েই চাইল্ড লাইনের কর্মীরা সেখানে যান। পুলিশও গিয়ে তদন্ত শুরু করে। ধর্ষক বাবার নাম গোবিন্দ দাস! ধর্ষক বাবার নাম গোবিন্দ দাস! তিনি ছোট একটি ব্যবসা করেন বলে জানতে পারা গেছে। ভুক্তভোগী মেয়েটি সাংবাদিককে ঘটনার কথা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলে!
সে জানায়, তাঁর বাবার নাম গোবিন্দ! সেই ছোটবেলায় তাঁর মা মারা গিয়েছেন। এরপর আবার গোবিন্দ দাস বিয়ে করে! মেয়েটির দুটো ছোট ভাই-ও আছে বাড়িতে! চোখের জল ফেলছে অঝোরে মেয়েটি আর বলে যাচ্ছে, তার বাবা এক বছর আগে তাকে প্রথম ধর্ষণ করেছে এবং কলঙ্কিত এই পুরুষ মেয়েকে হুমকি দিয়ে রাখে সে যেন এই ঘটনার কথা কার কাছে না বলে! পাঁচকান হলেই মেয়েটির ছোট ভাইকে মেরে ফেলা হবে প্রাণে!
এই হুমকি শুনে বাচ্চা মেয়েটি কোনভাবেই সাহস করতে পারেনি ঘটনা বিষয়ে মুখ খোলার, সম্প্রতি আবার তাকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে তার বাবা। একবার স্থানীয় পঞ্চায়েত এ বিষয়ে একটি সভা ডেকেছিল। এখন আবার কামুক পুরুষ গোবিন্দ নিজের সন্তানকে ধর্ষণ করেছে। এবার আর মেয়েতী তার বাবার বাড়িতে থাকতে রাজি নয় মোটেও! তদন্তপ্রক্রিয়া আরম্ভ হয়েছে পুলিশের।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য