About Me

header ads

শীর্ষ আদালতে খারিজ ১০,৩২৩ শিক্ষকের আবেদন!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ ১০,৩২৩ শিক্ষকের ভাগ্যের চাকা শেষ অব্দি ঘুরলো না। হাজার হাজার শিক্ষক শিক্ষিকা আগেই চাকুরি হারায়। হাইকোর্টের রায়ে চাকুরিচ্যুত হবার পর ১০,৩২৩ শিক্ষক আন্দোলন সংঘটিত করে। সভা সমাবেশ, বিক্ষোভ, পথ অবরোধ, আমরণ আনশন কোন কিছুই বাদ দেয়নি।
রাজ্যে বামেরা ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়েই ১০,৩২৩ শিক্ষক শিক্ষিকা চাকরি পেয়েছিল। ওই আমলেই মাননীয় আদালতের রায়ে চাকুরিচ্যুত হতে হয় তাদের। পুনরায় চাকুরি ফিরে পাওয়ার দাবিতে রাজ্য সরকারের দরজায় কড়া নাড়ে। প্রতিশ্রুতি, আশ্বাস মিললেও বাস্তবে তাদের ভাগ্যে নিরাশা ছাড়া কিছুই জুটেনি।
অবশেষে ১০,৩২৩ চাকুরিচ্যুত শিক্ষক সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করে। মুলত হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়েই মাননীয় সুপ্রিম কোর্টে মামলা করে এই শিক্ষকরা।কয়েক দফায় এই মামলার উপর বিচারপতিরা আলোচনা করেন আদালতে।বিভিন্ন কারণে বেশ কয়েকবার স্থগিত থাকে শুনানি।
অবশেষে বুধবার এই মামলার রায় বের হয়। মাননীয় সুপ্রিম কোর্ট সবকিছু বিচার বিশ্লেষণ করে বহু প্রতিক্ষিত মামলার রায় ঘোষণা করেন বুধবার। রায়ে পরিষ্কার ভাবে সুপ্রিম কোর্ট শিক্ষকদের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে। রাজ্য সরকার চেয়েছিল এই শিক্ষকদের অন্য কোনো বিকল্প ব্যবস্থা করে দিতে। রাজ্য সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে তাদের সুযোগ যাতে করে দেওয়া যায় এই জন্য আবেদন করেছিলেন।
মাননীয় সুপ্রিম কোর্ট রাজ্য সরকারের আবেদনও এক্ষেত্রে খারিজ করে দিয়েছে। শীর্ষ আদালত এদিন সকাল সাড়ে ১১ টায় রায় ঘোষণা করেন। রায় দেওয়ার আগে শীর্ষ আদালত চাকুরিচ্যুত শিক্ষকদের আবেদন গুলি পর্যবেক্ষণ করে দেখেছে।শেষ অব্দি শীর্ষ আদালত সব পিটিশন খারিজ করে দেয়। পাশাপাশি রাজ্য সরকারের আপিলের উপর পর্যবেক্ষণ করেছে শীর্ষ আদালত। সবকিছু খতিয়ে দেখার পর বহু প্রতিক্ষিত মামলার রায় ঘোষণা করেন মাননীয় সুপ্রিম কোর্ট।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য