About Me

header ads

স্বামীকে খুন করে মাটি চাপা দিল স্ত্রী, অবশেষে থানায় আত্মসমর্পণ!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ চাঞ্চল্য ঘটনা প্রকাশ্যে এল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়। নিজ ঘড়ের মাটির নীচ থেকে উদ্ধার হল স্বামীর মৃতদেহ। ঘটনা গন্ডাছড়া থানার অন্তর্গত উল্টাছড়া এডিসি ভিলেজের  জগবন্ধু পাড়ার বাজার সংলগ্ন ভক্তি কুমার পাড়ায়। স্ত্রীর স্বীকারোক্তি মূলে গন্ডাছড়া থানার পুলিশ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা রাতে ঘরের মধ্যে মাটির নিচ থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে গন্ডাছড়া মহকুমা হাসপাতালের মর্গে নিয়ে আসে। মৃত ব্যক্তির নাম সঞ্জিত রিয়াং, বয়স ৩০। এই ঘটনায় রহস্য ঘনীভূত।
জানা গেছে স্বামীকে হত্যা করে মরদেহ মাটি চাপা দেয় স্ত্রী। ঘটনাটি ঘটে বুধবার গভীর রাতে । ঘটনার বিবরনে জানা যায় বুধবার গভীর রাতে সঞ্জিত রিয়াং এর স্ত্রী ভারতী ত্রিপুরা স্বামীকে দা দিয়ে মাথায় আঘাত করে খুন করে। পরে ঘরের মধ্যে মাটি গর্ত করে মরদেহ চাপা দিয়ে রাখে।
বৃহস্পতিবার ভোরে স্ত্রী বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে রইস্যাবাড়ি থানায় আত্ম সমর্পন করে। একই সঙ্গে খুনের ঘটনা স্বীকার করে। রইস্যাবাড়ি থানার  পুলিশ সাথে সাথে গন্ডাছড়া থানায় খবর দেয়। শুক্রবার মরদেহ ময়না তদন্ত করা হবে। এদিকে এই খুনের ঘটনার সাথে আরো কারা কারা জড়িত থাকতে পারে পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে। প্রশ্ন উঠেছে বাড়ী থেকে কেন পালিয়ে গিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয় স্ত্রী? কি এমন ঘটল যাতে করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিল স্ত্রী? হত্যা করে মাটি চাপা দিয়ে রাখাল স্বামীকে? এই সমস্ত বিষয় স্পষ্ট হবে সঠিক পুলিশি তদন্তেই। সেদিকে তাকিয়ে আছে ভক্তি কুমার পাড়ায় বাসিন্দারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য