About Me

header ads

রাজ্যে জোড়া মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ সোমবার দুপুরের পর বোধজঙ্গনগর থানা এলাকা থেকে উদ্ধার হয় এক যুবক যুবতীর জোড়া মৃতদেহ।বোধজঙ্গনগরথানার পেছনে বিশাল পরিত্যক্ত জায়গায় একটা ঝোপের মধ্যে গাছের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় মৃতদেহ।খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে প্রাথমিক তদন্ত শুরু করে।
প্রাথমিকভাবে জানা যায় মৃত ছেলের নাম সঞ্জীব ঘোষ(২৬)। তার বাড়ি একই থানার আর কে নগর দেবনাথ পাড়া এলাকাতে। মৃত মেয়েটির পরিচয় জানা যায়নি। তবে সে কাঞ্চনপুর থেকে এসেছিল বলে প্রাথমিকভাবে পুলিশ কিছু সূত্র খুঁজে পাচ্ছে।
মৃত সঞ্জীব ঘোষের বাড়িতে তিন বছরের সন্তানসহ স্ত্রী রয়েছে। সে গত তিনদিন আগে থেকে নিখোঁজ ছিল বলে পরিবারের লোকজন থানায় জিডি এন্ট্রি করেছিলেন। কিন্তু পুলিশ তার কোন খোঁজ বের করতে পারেনি। তিনদিন বাদে দেহ উদ্ধার হয় জঙ্গলে। ঘটনাস্থলে ফুল, মালা সহ একটি হেলমেট এবং অন্যান্য সামগ্রী রয়েছে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। জঙ্গলে এসে তারা হয়তো বা প্রথমে বিয়ে করেন তারপর কোন কারণে মৃত্যুর পথ বেছে নেন। প্রাথমিকভাবে পুলিশের দাবি এটি জোড়া আত্মহত্যার ঘটনা হতে পারে।
কিন্তু মৃত মেয়েটির শরীরে রক্তের ছিটা দেখা গেছে। তাই খুনের সন্দেহ করছেন অনেকে। তাছাড়া সন্তানসহ স্ত্রীকে রেখে কেন সঞ্জীব ঘোষ আত্মহত্যা করবে তা নিয়ে প্রশ্ন দানা বেঁধেছে। শিল্পনগরীর মাঝখানে বিশাল পরিত্যক্ত জায়গায় কি করে তারা পৌঁছে ছিল তা নিয়েও বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন উঠেছে।
সর্বোপরি থানার পেছনে জোড়া মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। পুলিশ তদন্তের স্বার্থে এফ এস এল টিম ঘটনাস্থলে নিয়ে যায়।এস এস এল টিমের বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থল থেকে সন্দেহজনক অবস্থান থেকে নমুনা সংগ্রহ করেন।পুলিশ এ বিষয়টিতে অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে বলে জানা গেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য