About Me

header ads

কর মূল্যায়ন পদ্ধতিতে স্বচ্ছতা আনতে নতুন ব্যবস্থার ঘোষণা!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ কর মূল্যায়ন পদ্ধতিতে স্বচ্ছতা আনার লক্ষ্যে নয়া ব্যবস্থার ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বৃহস্পতিবার তিনি ট্রান্সপারেন্ট ট্যাক্সেশন- অনারিং দ্য অনেস্ট নামে একটি ব্যবস্থা চালু করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘এই নয়া ব্যবস্থার (প্ল্যাটফর্ম) মূল্য উদ্দেশ্য হল, স্বচ্ছ কর ব্যবস্থা, সততার সম্মান। কর দেওয়ার ক্ষেত্রে জটিলতা কমাবে এই ব্যবস্থা।’’
অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের উপস্থিতিতে বক্তৃতায় মোদী আজ দাবি করেন, তাঁর সরকারের আমলে গত গত ছবছরে কর ব্যবস্থায় আমূল বদল ঘটেছে। তাঁর কথায়, ‘‘আমরা জটিলতা কমিয়েছি, স্বচ্ছতা বাড়িয়েছি। করদাতাদের হয়রানি কমিয়ে তাঁদের আস্থা অর্জন করতে পেরেছি। আমাদের আয়কর আধিকারিকদের নিরলস পরিশ্রমের মাধ্যমে এই সাফল্য এসেছে।’’
মোদীর দাবি, সৎ করদাতাদের স্বার্থরক্ষায় তাঁর সরকার তৎপর। তাঁর সরকার চায়, সৎ করদাতারা যাতে উপযুক্ত সম্মান পান, এবং তাঁদের কোনওরকম হয়রানি বা জটিলতার মধ্যে পড়তে না হয়। নির্মলা আজ জানান, দেশে স্বচ্ছ ও সরল কর ব্যবস্থা চালুর ক্ষেত্রে এটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ।
কর নীতিতে স্বচ্ছতা আনার লক্ষ্যে গত বছর ফেসলেস মূল্যায়নের প্রক্রিয়া শুরু করেছিলেন সীতারামন। আজ নরেন্দ্র মোদীর মুখেও শোনা গিয়েছে সেই প্রসঙ্গ। তিনি বলেন, ‘‘কর ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা খুব জরুরি৷ আজ আমরা যে নতুন প্ল্যাটফর্ম চালু করছি, তাতে কর ব্যবস্থা ফেসলেস হয়ে যাবে। আমাদের প্রতিশ্রুতি মেনে, মিনিমাম গভর্নমেন্ট, ম্যাক্সিমাম গভর্ন্যান্স নীতি প্রতিষ্ঠিত হবে। দেশের নাগরিকের জীবনে সরকারি হস্তক্ষেপ কমবে।’’নয়া ব্যবস্থা চালু হওয়ায় অনলাইন রিটার্ন দাখিলের পর তার অ্যাসেসমেন্ট প্রক্রিয়ায় আধিকারিকদের ভূমিকা এবং তার ফলে দীর্ঘসূত্রিতা অনেকটাই নিয়ন্ত্রিত হবে। করদাতাদের থেকে বাড়তি তথ্য দাবি করে পুরো প্রক্রিয়া জটিল করে তোলার পরম্পরা থেকে তাঁর সরকার সরে এসেছে বলেও দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী। কেন্দ্রের দাবি, কর ব্যবস্থা সংস্কারের লক্ষ্যে গত কয়েক বছরে নানা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কর্পোরেট করের হার ৩০ থেকে ২২ শতাংশে নামানো হয়েছে। নতুন কারখানার ক্ষেত্রে কর কমিয়ে করা হয়েছে ১৫%।
এ প্রসঙ্গে পূর্ববর্তী সরকারগুলির সমালোচনাও করেন মোদী। তাঁর মন্তব্য, ‘‘স্বাধীনতার পর কর নীতি সংস্কারের কাজ চলেছে ধীর গতিতে। তার ফলে সাধারণ মানুষকে অনেক ভুগতে হয়েছে।’’ এমনকি, সৎ করদাতাদের সঙ্গে দীর্ঘদিন প্রতারণা করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। মোদী আজ বক্তৃতায় তাঁর সরকারের আর্থিক সাফল্যও তুলে ধরেন। তাঁর দাবি, করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও দেশে খুচরো ব্যবসা-সহ কয়েকটি ক্ষেত্রে রেকর্ড বিদেশি বিনিয়োগে হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য