About Me

header ads

ছাত্র ও প্রধান শিক্ষকের মৃত্যুর পর রাজ্যে স্থগিত নেইবারহুড ক্লাস!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ শেষ পর্যন্ত রাজ্য শিক্ষা বিভাগ আজ থেকে নেইবারহুড ক্লাস স্থগিত করতে বাধ্য হল। শিক্ষা বিভাগ গত রাতে একটি স্মারকলিপি জারি করেছে যেখানে তারা জানায়, শনিবার থেকে পরবর্তী আদেশ না হওয়া পর্যন্ত নেইবারহুড ক্লাস বন্ধ থাকবে।
২০ আগস্ট প্রচুর সমালোচনার পরেও রাজ্যের শিক্ষা বিভাগ বাছাই ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে নেইবারহুড ক্লাস চালু করে। শিক্ষক সংগঠন, অভিভাবক এবং বিরোধীরা শিক্ষা বিভাগের পরিকল্পনার তীব্র প্রতিবাদ করে। জানায় এর ফলে স্কুল ছাত্রদের মধ্যে করোনার (Covid-19) সংক্রমণ ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু রাজ্যের শিক্ষা বিভাগ পাড়ার ক্লাস শুরু করতে অনড় ছিল।
সরকারী পরিকল্পনা অনুসারে প্রত্যেক শিক্ষককে শিক্ষার্থীদের বাড়ির কাছে খোলা জায়গায় ক্লাস করানোর ব্যবস্থা করতে হয়। প্রতিটি গ্রুপে ৫ জন শিক্ষার্থী নিতে হত। প্রতিটি গ্রুপের শিক্ষার্থীদের দেড় থেকে দুই ঘন্টার জন্য গড়ে দুটি ক্লাস করানো হচ্ছিল। ফলস্বরূপ, প্রতিটি ছাত্রকে গড়ে কমপক্ষে তিন থেকে চার ঘন্টা ব্যয় করতে হত।
ক্লাসগুলি নেওয়া হচ্ছিল উন্মুক্ত স্থানে। অনলাইনে ক্লাসে অংশ নিতে পারেনি এমন শিক্ষার্থীদের বেছে নিয়ে পাড়াল ক্লাস চালানো হচ্ছিল। কিন্তু পাড়ার ক্লাস চালু হওয়ার পরে এক তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রের কোভিড পজিটিভ পাওয়া যায়। ১১ বছরের ছাত্র মারাও গিয়েছিল করোনার কারণে।
শুক্রবার এক প্রধান শিক্ষক করোনার ভাইরাসে সংক্রামিত হয়ে মারা যান। জানা গিয়েছে তিনি গত সোমবারও স্কুলে ক্লাস নিয়েছিলেন। সিপিআইএম বিধায়করা গতকাল মুখ্যমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং এই অবৈজ্ঞানিক, অস্বাস্থ্যকর, বিপজ্জনক নেইবারহুড ক্লাস নেওয়া বন্ধ করারও দাবি জানান। শেষ অবধি সরকার আজ থেকে নেইবারহুড ক্লাস বন্ধ করে দিয়েছে। রাজ্য সরকারের হঠকারি সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ করছে সব মহল।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য