About Me

header ads

১২ দফা দাবিতে গণ মুক্তি পরিষদের ইমেল অভিযান শুরু!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ ত্রিপুরার জনজাতির মধ্যে কাজ করা সিপিএম দলের সংগঠন গণ মুক্তি পরিষদ (জিএমপি) দেশ জুড়ে ইমেল অভিযান শুরু করেছে। বারো দফ দাবিতে চলছে তাদের অভিযান।
জিএমপি সভাপতি তথা প্রাক্তন সাংসদ জিতেন চৌধুরি এবং স্বশাসিত পরিষদের প্রাক্তন মুখ্য কার্যবাহী সদস্য রাধা চরণ দেববর্মা বলেন, জিএমপি কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৬ অগস্ট থেকে বারো দফা দাবি নিয়ে ইমেল অভিযান শুরু করেছে। চলবে ১৯ অগস্ট পর্যন্ত।
জিতেন্দ্র চৌধুরি বলেন, জিএমপি সমর্থকেরা ও কর্মীরা দাবিগুলি নিয়ে ভারতের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, ত্রিপুরার রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেবের কাছে ইমেল পাঠাবেন। দাবিগুলির মধ্যে রয়েছে, করোনা থাকাকালীন প্রতি মাসে বিনামূল্যের রেশন, ও পরিবারপিছু সাড়ে সাত হাজার টাকা। দাবি করা হয়েছে, সংসদের আসন্ন অধিবেশনে স্বশাসিত পরিষদের ক্ষমতা বাড়াতে হবে।
আরও দাবি, স্বশাসিত পরিষদের অধীনস্থ জনজাতি এলাকায় খাদ্য সংকটের নিরসন, রাজ্য সরকারের ও কেন্দ্র সরকারের সংরক্ষিত সব পদ জনজাতির প্রার্থীদের দিয়ে পূরণ করা। প্রাক্তন সাংসদ বলেন, সংবিধান অনুযায়ী কেন্দ্র সরকারের দফতর গুলিতে জনজাতিদের জন্য সংরক্ষণ রয়েছে। কিন্তু জনজাতিদের জন্য সংরক্ষিত আসনের মাত্র ১ শতাংশ আসন তফশিলভুক্ত জনজাতির প্রার্থীদের হাতে আছে। বাকি আসন হয় খালি বা অন্যদের দখলে। বিচারব্যবস্থাতেও জনজাতিদের প্রতিনিধিত্ব খুবই কম।
রাধাচরণ দেববর্মা বলেন, রাজ্যে আর্থ-সামাজির অবস্থার দিনে দিনে অবনতি হচ্ছে। ত্রিপুরার স্বশাসিত জেলা পরিষদ এলাকাগুলিতে খাবার ও কাজের চূড়ান্ত অভাব। জনজাতির মানুষরা কষ্ট পাচ্ছেন কিন্তু পরিষদের হাতে পরিস্থিতি বদলানোর কোনও ক্ষমতা নেই।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য