About Me

header ads

রাজ্যের সকলের করোনা পরীক্ষার দাবি সহ বেশ কিছু দাবি উত্থাপন করলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ ত্রিপুরার রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার ত্রিপুরায় ক্রমবর্ধমান উগ্রপন্থীদের তৎপরতায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। সিপিআইএম (CPIM) রাজ্য কমিটির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মানিক সরকার বলেন, কিছু রাজনৈতিক নেতা এখন চরমপন্থী গোষ্ঠীগুলির সাথে সম্পর্ক বজায় রাখছেন। যদিও তিনি ওই রাজনৈতিক নেতাদের নাম উল্লেখ করেননি। তিনি আরও অভিযোগ করেন যে, কিছু আত্মসমর্পণকারী উগ্রপন্থী জঙ্গি সংগঠনগুলির সঙ্গে পুনরায় সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করছে।
আজ প্রাক্তন সিএম এবং বর্তমান বিরোধী নেতা মানিক সরকারের নেতৃত্বে সিপিআইএম বিধায়কদের একটি দল মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের সাথে দেখা করেছেন। ওই বৈঠকে সিপিএম বিধায়করা ক্রমবর্ধমান জঙ্গি কর্মকাণ্ড সম্পর্কে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। মানিক সরকার বলেন, তাঁদের আমলে রাজ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠায় জোর দেওয়া হয়েছিল। যে কোনও মূল্যে ত্রিপুরায় শান্তি বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর ছিল সরকার। রাজ্য সরকার শান্তির সাথে আপোষ করেনি।
উল্লেখ্য গত মাসে ত্রিপুরা পুলিশ বেশ কয়েকজন উগ্রপন্থী নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে। শুক্রবার আগরতলায় গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে সরকার বলেছিলেন, রাজ্যে সিপিআই (এম) এর শাসনামলে উগ্রপন্থা সমস্যা শেষ হয়ে গিয়েছিল। আমাদের নীতি ও কর্মসূচীই রাজ্যের মানুষকে নাশকতা নির্মূল করার দিকে পরিচালিত করেছিল। তার জন্য পুলিশকে শুধুই ট্রিগার-হ্যাপি হতে হয়নি। সিএমপিআইএম বিধায়করা দাবি করেন, রাজ্য সরকারের বিষয়টি বিষয়টি গুরুত্বের সাথে নেওয়া উচিত। নাশকতার পাশাপাশি করোনা (Covid-19) পরিস্থিতি নিয়েও মুখ্যমন্ত্রীক সঙ্গে আলোচনা করেন বাম প্রতিনিধি দল।
তাদের দাবি, আরও বেশি সংখ্যক নমুনা পরীক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য রাজ্যে পরীক্ষাগারের সংখ্যা বাড়াতে হবে। যাতে পরীক্ষাগার স্থাপনের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক আর্থিক অনুমোদন দেওয়া হয় সেই জন্য বিষয়টি কেন্দ্রের কাছে গুরুত্ব দিয়ে তুলে ধরার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান তাঁরা।
ত্রিপুরার কোভিডের ক্রমবর্ধমান শোচনীয় পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে হয় আজকের বৈঠক। মানিকবাবু মুখ্যমন্ত্রীকে আবেদন জানান, সংকট ও অনিশ্চয়তা থেকে মুক্তি পেতে রাজ্যে সকলের করোনা পরীক্ষা করানোর ব্যবস্থা হোক। ত্রিপুরা সিপিএম কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে থাকা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ বিভিন্ন শ্রেণীর লোকদের অর্থনৈতিক সহায়তার দাবিও করেছে। এছাড়াও কর্মহীন চিকিৎসক ও নার্সদের কর্মসংস্থানও দাবী করা হয়। মানিক সরকার যে কোনও মূল্যে অবিলম্বে রাজনৈতিক হিংসা বন্ধ করার দাবি জানান।
আজ, সিএমআই এবং সিপিএম বিধায়কদের মধ্যে অনুষ্ঠিত একটি বৈঠক বিধায়করা কোভিড অতিমারি, লকডাইন, কনটেনমেন্ট জোন ইত্যাদিক কারণে বিপুল সংখ্যক লোক যে অর্থনৈতিক সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন সেই বিষয়ে আলোচনা চালান। বিরোধী নেতা মানিক সরকারের বক্তব্য অনুসারে, বিপ্লব দেব তাঁদের বলেছেন, সরকার ইতিমধ্যে সেই বিষয়টি নিয়ে বিবেচনা করে পদক্ষেপ নিচ্ছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য