About Me

header ads

স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর জরুরি বৈঠক!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ করোনাকে ঘিরে এখনো রাজ্যের একটা অংশের মানুষ একদমই সচেতন হচ্ছেন না। তারা সরকারের দেওয়া নির্দেশকে কোনো ভাবেই মান্যতা দিচ্ছেন না। যার ফলে প্রশাসন বাধ্য হয়ে তাদেরকে ফাইন ও করছে। এতে ও সম্বিৎ ফিরছে না এই একটা অংশের লোকের। যার ফলে বাধ্য হয়ে আগামী দিনে আরো কঠোর হওয়ার দিকেই রাজ্য সরকার চিন্তা ভাবনা করছে।
এর জন্য সোমবার সন্ধ্যাতেই মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব জরুরি মিটিং করছেন স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে মহাকরণে। করোনাকে ঘিরে আরো কিছু পরিমাণ গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে খুব শীঘ্রই। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে এই কথাগুলো  বললেন আইনমন্ত্ৰী রতন লাল নাথ। একের পর এক বিভিন্ন সতর্কতাকে ঘিরে কোনো ভাবেই সচেতন হচ্ছেন না একটা অংশের লোক। ফাইন এর হিসেব ও তুলে ধরেন আইনমন্ত্রী।
আইনমন্ত্রী রাজ্যের কোভিড নিয়ে লেটেস্ট রিপোর্ট তুলে ধরেন সাংবাদিকদের কাছে। এখন রাজ্যে একটিভ কেস রয়েছে ৫৭৬ টি। সুস্থ হয়ে গেছেন ১৪৭৫ জন। রিকভারী রেট রাজ্যে এই মুহূর্তে রয়েছে ৭২ শতাংশ। সোমবার সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৪ জন।এন্টিজেন টেস্ট শুরু হয়ে গেছে গোটা রাজ্যে। বিগত চারদিন ধরেই চলছে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় এই এন্টিজেন টেস্ট। এখন পর্যন্ত ১৬১৪ জনের করা হয়ে গেছে এই এন্টিজেন টেস্ট। এর মধ্যে ২১ জনের পজেটিভ ও এসেছে। জানালেন আইনমন্ত্রী। এখানেই শেষ নয়, কোয়েরেন্টাইন  সেন্টার ও বাড়ানো হয়েছে। পাশাপাশি কন্টেনমেন্ট জোন ও বাড়ানো হয়েছে রাজ্যে, বলে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী রতন লাল নাথ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য