About Me

header ads

রাজ্যে কর্মরত সাংবাদিকদের দাবি পূরণে রাজ্য মন্ত্রী সভায় সিদ্ধান্ত!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ রাজ্যে কর্মরত সাংবাদিকদের দীর্ঘ দিনের দাবি পূরণে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলো রাজ্য মন্ত্রী সভা। মঙ্গলবার রাজ্য মন্ত্রী সভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এইদিনের বৈঠকে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। যার মধ্যে রয়েছে রাজ্যে কর্মরত সাংবাদিকদের স্বার্থে গৃহীত একটি সিদ্ধান্ত।
রাজ্যে কর্মরত সাংবাদিকদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল ইলেক্ট্রনিক ও ওয়েব মিডিয়ার সাংবাদিকদের অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড প্রদান করা হোক। পূর্বতন সরকারের সময় থেকে রাজ্যে কর্মরত সাংবাদিকরা এই দাবি জানিয়ে আসছিল। অবশেষে বর্তমান সরকার সাংবাদিকদের দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। মন্ত্রীসভার এই সিদ্ধান্তের কথা মহাকরণে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান মন্ত্রী রতন লাল নাথ।মঙ্গলবার রাজ্য মন্ত্রীসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এইদিনের বৈঠকে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
১৯৭২ সালের ২১ জানুয়ারি ত্রিপুরা পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা পায়। প্রতি বছরই এই দিনটিকে পূর্ণ রাজ্য দিবস হিসাবে পালন করা হয়।  রাজ্য মন্ত্রী সভা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে এই বছর থেকে পূর্ণ রাজ্য দিবস উপলক্ষ্যে ৫ টি এ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে। এই ৫ টি এ্যাওয়ার্ড হল ত্রিপুরা বিভূষণ সম্মান, ত্রিপুরা ভূষণ সম্মান, এসডি বর্মণ মেমোরিয়াল সম্মান, মহারানী কাঞ্চন প্রভা দেবী মেমোরিয়াল সম্মান ও স্টেট এ্যাওয়ার্ড ফর সাইনন্টেফিক এন্ড এনভাইরোমেণ্টাল এক্টিভিটিস। ত্রিপুরা বিভূষণ সম্মান ও ত্রিপুরা ভূষণ সম্মান হিসাবে নগদ ২ লক্ষ টাকা সহ ট্রফি তুলে দেওয়া হবে। এসডি বর্মণ মেমোরিয়াল সম্মান, মহারানী কাঞ্চন প্রভা দেবী মেমোরিয়াল সম্মান ও স্টেট এ্যাওয়ার্ড ফর সাইনন্টেফিক এন্ড এনভাইরোমেণ্টাল এক্টিভিটিস সম্মান প্রাপকদের নগর ১ লক্ষ টাকা সহ ট্রফি প্রদান করা হবে। কোন কোন ক্ষেত্রে এই সম্মান প্রদান করা হবে সেই বিষয়েও এইদিনের মন্ত্রীসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। মন্ত্রী সভার বৈঠক শেষে মহাকরণে সাংবাদিক সম্মেলন করে মন্ত্রী সভার এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানান আইনমন্ত্রী রতন লাল নাথ।
মঙ্গলবার পর্যন্ত ধান ক্রয় করা হয়েছে ৪ লক্ষ ৩৩ হাজার ৫৩১ কেজি। এজন্য কৃষকদের হাতে টাকা গেছে ৭৮ লক্ষ ৬৮ হাজার টাকা। লকডাউন চলাকালীন সময় রাজ্য সরকার চাকুরিচ্যুত ১০৩২৩ জন শিক্ষককে ৩৫০০০ টাকা করে প্রদানের ঘোষণা দেয়। সেই মোতাবেক ইতিমধ্যে এলিমেন্টারি এডুকেশন এর অধীন ৪৫৪৬ জন শিক্ষককে টাকা দিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার জন্য রাজ্য সরকারের ব্যয় হয়েছে ১৫ কোটি ৯১ লক্ষ টাকা। সেকেন্ডারি এডুকেশন এর অধীন ৫১৪৩ জনকে টাকা দেওয়া হয়েছে। ব্যাংক একাউন্টে সমস্যা থাকার কারণে ৩১০ জনকে টাকা দেওয়া যায়নি। পরবর্তী সময় তাদের একাউন্টে টাকা দিয়ে দেওয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী রতন লাল নাথ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য