About Me

header ads

উত্তর জেলা ও ঊনকোটি জেলার একাধিক ব্লক এলাকা পরিদর্শনে মুখ্যমন্ত্রী!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ করোনা সংক্রমণজনিত উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সরকারের ঘোষিত সিদ্ধান্তগুলির সুযোগ সুবিধা জনগণ পাচ্ছেন কিনা তা সরেজমিনে প্রত্যক্ষ করতে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব বুধবার উত্তর ত্রিপুরা এবং ঊনকোটি জেলা সফর করেছেন৷ ঊনকোটি জেলার পেঁচারথল ব্লকের নবীনছড়া ভিলেজ পরিদর্শনের পর মুখ্যমন্ত্রী বিকেল চারটায় কুমারঘাটের পঞ্চায়েতরাজ ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে তৈরি প্রাতিষ্ঠানিক একান্তবাস কেন্দ্র পরিদর্শন করেন৷ মুখ্যমন্ত্রীর সাথে ছিলেন বিধায়ক ভগবান দাস, কুমারঘাট পুরপরিষদের চেয়ারপার্সন অনামিকা মালাকার, কুমারঘাট পঞ্চায়েত সমিতির চেয়ারম্যান হ্যাপি দাস, জেলাশাসক রবীন্দ্র রিয়াং, মহকুমাশাসক সন্দীপ চক্রবর্তী, বিডিও মিঠুন দাসচৌধুরী প্রমুখ৷ পরিদর্শনকালে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব প্রাতিষ্ঠানিক একান্তবাসে যাঁরা রয়েছেন তাঁদের সাথে কথা বলেছেন৷
মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব ঊনকোটি জেলার পেঁচারথল ব্লকের নবীনছড়া ভিলেজে একান্তবাস কেন্দ্রটি পরিদর্শন করেছেন৷ এখানে মুখ্যমন্ত্রীর সাথে অন্যান্যদের মধ্যে ঊনকোটি জেলা পরিষদের সভাধিপতি অমলেন্দু দাস, জেলাশাসক রবীন্দ্র রিয়াং, বিধায়ক ভগবান দাস, পুলিশ সুপার রতিরঞ্জন দেবনাথ ছিলেন৷ মুখ্যমন্ত্রী এই একান্তবাস কেন্দ্রে যাঁরা রয়েছেন তাঁদের বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজখবর নেন৷ জেলাশাসকের কাছে মুখ্যমন্ত্রী জেলার করোনা পরিস্থিতির বিষয়েও খোঁজখবর নেন৷ একান্তবাস কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় মুখ্যমন্ত্রী জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের কাছে জেলার একান্তবাস কেন্দ্রগুলির বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজখবর নেন৷ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বাইরে থেকে যাঁরাই আসবেন তাঁদের একান্তবাসে থাকা বাধ্যতামূলক৷ এক্ষেত্রে যাতে কোনও দুর্বলতা না থাকে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে৷ উল্লেখ্য, নবীনছড়া ভিলেজের একান্তবাস কেন্দ্রে বেঙ্গালুরু থেকে আগত ৪ জন রয়েছেন৷
করোনা সংক্রমণজনিত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব আজ সকালে প্রথমে উত্তর ত্রিপুরা জেলা সফরে আসেন৷ উত্তর ত্রিপুরা জেলার বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত পরিদর্শনকালে মুখ্যমন্ত্রী প্রাতিষ্ঠানিক একান্তবাস এবং বাড়িতে একান্তবাস পরিদর্শন করেছেন৷ একান্তবাসে থাকা মানুষের সাথে তিনি কথা বলেন৷ উত্তর ত্রিপুরা জেলার একান্তবাস কেন্দ্রগুলি পরিদর্শনের সময় মুখ্যমন্ত্রীর সাথে ছিলেন বিধানসভার উপাধ্যক্ষ বিশ্ববন্ধু সেন, উত্তর ত্রিপুরা জেলা পরিষদের সভাধিপতি ভবতোষ দাস, মুখ্যমন্ত্রীর বিশেষ সচিব পি কে গোয়েল, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতরের অধিকর্তা ডা. শুভাশিস দেববর্মা, জেলাশাসক ও সমাহর্তা রাভাল হেমেন্দ্র কুমার, পুলিশ সুপার ভানুপদ চক্রবর্তী, মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডা. জগদীশ চন্দ্র নমশূদ্র সহ জেলার পদস্থ আধিকারিকগণ৷
জেলার বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শনকালে মুখ্যমন্ত্রী যুবরাজনগর ব্লকের উত্তর গঙ্গানগর পঞ্চায়েত অফিস, কালাছড়া ব্লকের বালিছড়া এডিসি ভিলেজ, ভিলেজ কমিটির অফিস, কদমতলা ব্লকের বড়গুল পঞ্চায়েত অফিস এবং পানিসাগর ব্লকের অগিপাশা পঞ্চায়েত অফিস পরিদর্শন করেন৷ এই সমস্ত এলাকা পরিদর্শনের সময় করোনা ভাইরাস সংক্রমণজনিত পরিস্থিতিতে লকডাউনের কারণে কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের ঘোষিত বিভিন্ন প্রকল্পের সুযোগ সুবিধাগুলি সঠিকভাবে রূপায়িত হচ্ছে কিনা তা খতিয়ে দেখেন এবং খোঁজখবর নেন৷ মুখ্যমন্ত্রী কিষাণ সম্মাননিধি, অটল জলধারা যোজনা, প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনা, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা এবং আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প রূপায়ণের বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজখবর নেন৷
লকডাউনের সময়ে ন্যায্যমূল্যের দোকান থেকে জনগণ বিভিন্ন সামগ্রী সময় মতো পেয়েছেন কিনা সে বিষয়েও মুখ্যমন্ত্রী খোঁজখবর নিয়েছেন৷ বালিছড়া ভিলেজ এলাকা পরিদর্শনের সময় মুখ্যমন্ত্রী জনজাতি অধ্যুষিত এলাকায় উন্নয়ন কর্মসূচি রূপায়ণে সরকারের অগ্রাধিকারের বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, জনজাতি এলাকার উন্নয়নে সরকার সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে৷ বালিছড়া ভিলেজে উন্নয়ন কর্মসূচি রূপায়ণে অগ্রগতির বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী খোঁজখবর নেন এবং ভিলেজ কমিটির চেয়ারম্যানকে এ বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য বলেন৷ ভিলেজ এলাকায় এমজিএনরেগা প্রকল্পে চলতি বছরে যথাযথভাবে কাজ হচ্ছে কিনা সে বিষয়েও খোঁজ নেন মুখ্যমন্ত্রী৷ এম জি এন রেগায় কর্মসংস্থান আরও বাড়াতে নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী৷ গ্রামীণ এলাকার কাঁচা রাস্তাগুলি এমজিএনরেগা এবং পঞ্চায়েত উন্নয়ন তহবিলের অর্থে উন্নত করার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন মুখ্যমন্ত্রী৷

মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব আজ জেলার ধর্মনগর মহকুমার গঙ্গানগর দ্বাদশ শ্রেণি বিদ্যালয়, বালিছড়া এসবি সুকল, পানিসাগর মহকুমার স্পোর্টস সুকলের প্রাতিষ্ঠানিক একান্তবাস কেন্দ্রও পরিদর্শন করেন৷ একান্তবাস কেন্দ্রগুলিতে যাঁরা রয়েছেন তাঁদের সাথে কথা বলে বিস্তারিত খোঁজখবর নেন৷ একান্তবাস কেন্দ্রের সমস্ত সুযোগ সুবিধা তাঁরা পাচ্ছেন কিনা সে বিষয়েও খোঁজ নেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তাছাড়া একান্তবাসের আওতাধীন বিরাজ দাসের বাড়িতে গিয়েও তাঁর খোঁজখবর নেন মুখ্যমন্ত্রী৷ একান্তবাস কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় মুখ্যমন্ত্রী আশাকর্মীদের সাথেও কথা বলেন৷ পরে মুখ্যমন্ত্রী পানিসাগর কমিউনিটি হেলথ সেন্টারটি পরিদর্শন করেন৷ কোয়ারেন্টাইন সেন্টার পরিদর্শনের পর মুখ্যমন্ত্রী আশা প্রকাশ করে বলেনন যাঁরা বাড়িতে একান্তবাসে রয়েছেন তাঁরা প্রত্যেকেই সুস্থ থাকবেন এবং যাঁরা প্রাতিষ্ঠানিক একান্তবাসে আছেন তারা সুস্থভাবেই বাড়ি ফিরে যেতে পারবেন৷

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য