About Me

header ads

রাজ্যের বিভিন্ন বাজারে মূল্য নিয়ন্ত্রণে টাস্কফোর্সের অভিযান অব্যাহত!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ দেশ জুড়ে ক্রমাগত লকডাউনের ফলে বিপন্ন জীবন যাত্রা, এই সংকট পরস্থিতিতে যাতে রাজ্যের মানুষকে চড়া দামে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষপত্র ক্রয় করতে না হয় সেই দিকে লক্ষ রেখেই রাজ্যের প্রত্যেকটি মহকুমায় স্পেশাল টাস্ক ফোর্স ঘটন করা হয়েছে। এই টাস্ক ফোর্স গুলি বাজারে মুল্য বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রনে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করছেন বলে জানা যায়।
মঙ্গলবার কিছু সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তেলিয়ামুড়া মহকুমা টাস্ক ফোর্স অভিযান চালায় তেলিয়ামুড়া বাজারের বেশকিছু দোকানে। এই অভিযানের নেতৃত্বে ছিলেন তেলিয়ামুড়া মহকুমার ডিসিএম প্রদীপ দেববর্মা। এইদিন তেলিয়ামুড়া বাজারের ব্যবসায়ী মানিক সাহা ও শ্যামল পালের দোনাকে অভিযান চালায় এই টাস্ক ফোর্স। অভিযান কালে এই দুই দোকান থেকে বিপুল পরিমাণ পলিব্যাগ ও মেয়াদ উত্তীর্ণ সামগ্রী উদ্ধার হয়। এছাড়াও এইদিন তেলিয়ামুড়া বাজারের আরও বেশকিছু দোকানে অভিযান চালায় তেলিয়ামুড়া মহকুমা টাস্ক ফোর্স।
তাছাড়া, লক ডাউনের তৃতীয় দফায় গ্রীন জোনে থাকা এলাকা গুলিতে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। সেই ছাড়ের সুবাদে কিছু কিছু দোকান অতিরিক্ত দামে জিনিস পত্র বিক্রি করছে। এই অভিযোগ পাওয়ার পরেই মঙ্গলবার রাজধানীর মহারাজগঞ্জ বাজারের চাল পট্টীতে অভিযান চালায় সদর মহকুমা শাসক অসীম সাহার নেতৃত্বে টাস্ক ফোর্সের দলটি। একটি দোকানে হানা দিয়ে কিছু বিদেশী সিগারেট উদ্ধার করা হয়। অবৈধ ভাবে এই সিগারেট মজুত করা হয়েছিল বলে জানান সদর মহকুমা শাসক। কোন কাগজ পত্র ছিল না বলে জানান তিনি।
এই অভিযান চালাতে গিয়ে একটি ব্যাগের মধ্যে উদ্ধার হয় প্রচুর পরিমাণে টাকা। এই বিষয়ে ইনকাম ট্যাঙ্কের অফিসারদের অবগত করা হয়। তারা বিপুল পরিমাণে টাকা উদ্ধারের বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখবে বলে জানান সদর মহকুমা শাসক। এদিকে অবৈধ ভাবে বিদেশী সিগারেট মজুত করা এবং প্রচুর পরিমাণে ব্যাগের মধ্যে টাকা উদ্ধারের ঘটনায় দোকান মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।
তবে শহর আগরতলায় একাংশ অসাধু ব্যবসায়ী লক ডাউনের সুযোগ নিয়ে সিগারেটের চড়া মূল্য হাঁকাচ্ছে বলে অভিযোগ। দ্বিগুণের অধিক দামে এই সমস্ত সামগ্রী কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের। অথচ কোম্পানী সব জেনেও নিরব বলে অভিযোগ। টাস্ক ফোর্স এই ক্ষেত্রে কেন নিরব তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। এই ভাবে অতিরিক্ত মজুত ও অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধির অভিযোগে কঠোর পদক্ষেপ নিক টাস্ক ফোর্স  তার দাবি উঠেছে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ