About Me

header ads

পুরীতে জগন্নাথের রথ প্রস্তুতিতে সায় কেন্দ্রীয় সরকারের!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ করোনা আবহে এবার পুরীর রথযাত্রা হবে কিনা তা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের ভার নবীন পট্টনায়েক সরকারের উপরই ছেড়ে দিল কেন্দ্র। তবে, রথ নির্মাণের ছাড়পত্র দিয়েছে মোদী সরকার। ওড়িশার সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা। প্রতিবছর ১০ লক্ষ পূণ্যার্থী রথ দেখতে পুরীতে ভিড় জমান। কিন্তু, করোনা লকডাউনের কারণে এবার রথযাত্রা অনিশ্চিত।
সম্প্রতি, লকডাউনের মধ্যে রথ নির্মাণের অনুমতি চেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রেক কাছে চিঠি দিয়েছিল ওড়িশা সরকার। তারই জবাবে কেন্দ্র জানিয়েছে, পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রেখে রথ নির্মাণ কাজ করার ক্ষেত্রে কোনও বাধা নেই। তবে, চিঠিতে উল্লেখ, রথযাত্রা হবে কিনা তা সেই সময়ের পরিস্থিতি বিবেচনা করে চূড়ান্ত করতে হবে রাজ্য সরকারকেই।
কেন্দ্রের কাছ থেকে অনুমতি চেয়ে চিঠিতে ওড়িশি সরকার লেখে, ৪ মে জগন্নাথ মন্দির কমিটি রথ খালার নির্মাণ কাজ শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই কাজের জায়গা প্রকাশ্যে নয় ও কোন ধরনের জমায়েত সেখানে হয় না বলেই দাবি করা হয়। এছাড়ও বলা হয়, রথ নির্মাণের জায়গা আলাদা করার জন্য কাপড় নিয়ে ঘিরে রাখা হবে।
জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানায়, জমায়েত হবে না ও পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রেখে কাজ হবে এই শর্ত সাপেক্ষে রথ নির্মাণ কাজে ছাড়পত্র দেওয়া হল, অবশ্যই রখ খালা সম্পূর্ণ আলাদা করতে হবে। তৃতীয় পর্যায়ের যে লকডাউন গাইডলাইন প্রকাশ করা হয়েছে তাও মানতে হবে বলে স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয়েছে।
করোনা সংক্রমণের আতঙ্কে অনেক আগেই জনসাধারণের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল পুরীর মন্দিরের দরজা। ওড়িশা সরকার জানিয়েছিল, জুন মাসে হতে চলা রথযাত্রা এবার অনুষ্ঠিত হবে পুরীর মন্দিরের ভিতরেই। প্রতি বছরের মত এবার রথ বের হবে না রাস্তায়। তবে পুরো বিষয়টিই ওড়িশা সরকারের উপর ছেড়ে দিয়েছে কেন্দ্র, তবে শর্ত সাপেক্ষে রথ নিমার্ণের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ