About Me

header ads

লক ডাউনে রাজ্যে সক্রিয় নিশিকুটুম্বের দল!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ লক ডাউনের জেরে আটকে পড়েছেন গৃহকর্তা। বর্তমানে রয়েছেন কলকাতায় ছেলের বাড়িতে। প্রায় দেড় মাস অতিক্রান্ত ঘরে ফিরতে পারেন নি তিনি। বাড়িতে থাকা অন্য ভাড়াটিয়ারও নিজ বাড়িতে চলে গেছে। প্রতিবেশীর কাছে ঘরের চাবি দিয়ে গেছেন। আর এই খালি বাড়ির সুযোগ নিয়ে চোরেরা তান্ডব চালাল রাজধানীর নজরুল কলাক্ষেত্রের পূর্ব দিকের এক বাড়িতে। দুটি ঘর থেকে যাবতীয় সামগ্রী চুরি করে নিয়ে যায় চোরেরা।
শুক্রবার সকালে প্রতিবেশীরা বাড়ির মূল ফটকের তালা খুলে বাড়ি থেকে ফুল ও বেল পাতা নিতে এসে দেখতে পান ঘরের দরজা খোলা। সাথে সাথে তারা খবর দেন পূর্ব আগরতলা থানার পুলিশকে। ঘটনাস্থলে ছুটে আসে পুলিশ। প্রতিবেশীরা জানান গত দের থেকে দুই মাস যাবৎ কলকাতায় ছেলের বাড়িতে আটকে পড়েছেন বাড়ির মালিক কালিদাস পাল।
লক ডাউনের কারণে বাড়িতে ফিরতে পারছেন না। এই বাড়িতে থাকা ভাড়াটিয়ারা বর্তমানে নেই। তারাই বাড়ি দেখভাল করে। গত দুদিন আগেও বাড়ি দেখে গেছেন তারা। সে সময় সব ঠিক ঠাক ছিল। এদিন সকালে বাড়ি থেকে ফুল ও বেল পাতা নিতে এসে এই দৃশ্য নজরে আসে তাদের। বাড়িতে থাকা চারটি ঘরের মধ্যে দুটি ঘরের দরজা ভাঙ্গা। ঘরের অভ্যন্তরে থাকা সামগ্রী লন্ড ভন্ড অবস্থায় রয়েছে। বাড়ির মালিক না থাকায় কি কি চুরি গেছে তা স্পষ্ট করে বলা সম্ভব নয়। তবে ভাড়াটিয়ার ঘরেও চোরেরা থাবা বসিয়েছে।
এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। এক পুলিশ অফিসার জানান খবর পেয়ে ছুটে এসে গোটা বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখেছেন। তবে বাড়ির মালিক না থাকায় কি কি সামগ্রী চুরি গেছে তা বলা সম্ভব হচ্ছে না। এদিকে বিষয়টি বাড়ির মালিককে অবগত করা হয়েছে। লক ডাউনের মাঝে বাড়ি খালি পেয়ে চোরের দলের এই কান্ডে কিছুটা আতঙ্কিত এলাকাবাসী। তবে শহর আগরতলায় চুরির ঘটনা এখন নতুন কিছু নয়। প্রায় প্রতিদিনই শহরের বিভিন্ন প্রান্তে এই ধরনের চুরির ঘটনা সামনে আসছে। চোরেদের রমরমায় অতিষ্ঠ শহরবাসী।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য