About Me

header ads

লকডাউন নিয়ে ৬টি পথ দেখাল নীতি আয়োগ!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ ৩ মে বর্ধিত লকডাউনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তারপর কোন পথে লকডাউন শিথিল হবে? তা নিয়েই এখন হবে জল্পনা তুঙ্গে। এরই মধ্যে আগামীতে জীবন-জীবিকা এগিয়ে নিয়ে যেতে সম্ভাব্য পথের সন্ধান দিয়েছেন নীতি আয়োগের সিইও অমিতাভ কান্ত। টুইটে ছয়টি কৌশলের কথা বলেছেন তিনি। কান্তের মতে, জীবনের জন্য পূর্ণ উদ্যমে অর্থনৈতিক কাজ শুরু হওয়া প্রয়োজন।
টুইটে অমিতাভ কান্ত লিখেছেন, সম্ভাব্য পথের সন্ধান: ১) রেড জোনে কঠোরভাবে লকডাউন মানতে হবে, ২) পারস্পরিক দূরত্ব ও মাস্ক = নতুন ফ্যাশন, ৩) ভাইরাস ফের মাথাচাড়া দিতে পারে, ৪) বিভিন্ন অসুখে ভোগা ষাটোর্ধ্বদের যত্নের সঙ্গে দেখভাল করতে হবে, ৫) টিকার আবিষ্কার এখনও বহু দূরের বিষয়, ৬) জীবিকার তাগিদে অর্থনৈতিক কাজ শুরু হওয়া প্রয়োজন।
করোনা পরিস্থিতির জেরে ১১টি বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন গোষ্ঠী তৈরি করেছে কেন্দ্র। যার মধ্যে একটির প্রধান নীতি আয়োগের সিইও অমিতাভ কান্ত। অতিমারী আবহে তাই তাঁর প্রস্তাব যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।
এর আগে কান্ত ও কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন নাগরিক বিভিন্ন সংস্থা ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলির সঙ্গে ভিডিয়ো বৈঠক করেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফের বলেছেন যে, কোভিড-১৯ মোকাবিলায় পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রাখা ও লকডাউনই সামাজিক ভ্যাকসিন। হু-য়ের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্ষেত্র ও দেশে ভাইরাস মোকাবিলায় ভারতই প্রথম থেকেই সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা করেছে। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারত অতি সক্রিয়। এই যুদ্ধে দেশের সর্ব শক্তিকে কাজে লাগানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন হর্ষবর্ধন। তাঁর কথায়, আমি নিশ্চত যে এই যুদ্ধে আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই আমাদের জয় আসবে। লকডাউনে গাইডলাইন মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য