About Me

header ads

কৃষি ভিত্তিক ব্যবসা এবং তার সম্প্রসারণের জন্য রাজ্য মন্ত্রীসভায় একাধিক সিদ্ধান্ত!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ কৃষি ভিত্তিক ব্যবসা এবং তার সম্প্রসারণের জন্য রাজ্য মন্ত্রীসভা ক্রিয়েসান অফ এগ্রি ইন্টারপ্রেনার্স ফেসিলেটেশান ডেস্ক স্থাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। কৃষি ক্ষেত্রে এম.বি.এ রয়েছে এমন দুই জন বিশেষজ্ঞকে নিয়ে এই ডেস্ক গঠন করা হবে। বৃহস্পতিবার মহাকরণে সাংবাদিক সম্মেলন করে রাজ্য মন্ত্রীসভায় গৃহীত সিদ্ধানের কথা জানান আইনমন্ত্রী রতন লাল নাথ।
মন্ত্রী সভা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে ক্রিয়েসান অফ এগ্রি ইন্টারপ্রেনার্স ফেসিলেটেশান ডেস্ক স্থাপনের। এই ধরনের ব্যবস্থা বর্তমানে রাজ্যে নেই। রাজ্য মূলত কৃষির উপর নির্ভর শিল। রাজ্য সরকার কৃষির উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে। যারা কৃষি নির্ভর ব্যবসা করতে চায় তারা জানে না কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের কি কি ছাড় রয়েছে। এই রাজ্যে এই ধরনের কোন সিঙ্গেল উইন্ডো সিস্টেম নেই। তাই রাজ্য সরকার ঠিক করেছে যে কৃষি ভিত্তিক ব্যবসা এবং তার সম্প্রসারণের জন্য এই ডেস্ক স্থাপনের। দুই সদস্যের বিশেষজ্ঞের ডেস্ক গঠন করা হবে। যাদের যোগ্যতা হবে কৃষি ক্ষেত্রে এম.বি.এ। এবং একই সঙ্গে দেখা হবে মার্কেটিং অভিজ্ঞতা। সফেদের মাধ্যমে তাদের নিয়োগ করা হবে। এক বছরের জন্য তাদের মেয়াদ কাল থাকবে। মাসিক সাম্মানিক হিসাবে তাদের প্রদান করা হবে ৭৫ হাজার টাকা করে। এতে সরকারের এক বছরে ব্যয় হবে ২৪ লক্ষ টাকা। রাজ্যের বিভিন্ন কৃষিজ পণ্যের ব্যবসা স্মপ্রসারনে তারা কাজ করবে। নিয়োগের এক বছরের মধ্যে দুই হাজার জনকে এই বিষয়ে অবগত ও সচেতন করতে হবে তাদের। ৪০০ জনকে আনতে হবে ব্যবসার আওতায়। ১০ টি ইউনিট স্থাপনের উদ্যোগ নিতে হবে। চারটি ক্রেতা বিক্রেতা মিট করাতে হবে। রাজ্যের উৎপাদিত কৃষি পণ্য তিন হাজার মেট্রিক টন রাজ্য ও বহিঃরাজ্যে বিক্রয়ের ব্যবস্থা করার লক্ষ্য মাত্রা দেওয়া হবে তাদের। সিঙ্গেল উইন্ডো সিস্টেমের মাধ্যমে এই গোটা প্রক্রিয়া চলবে। কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার জন্য এবং রাজ্যে বিনিয়োগ বারাতে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে মহাকরণে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান আইন মন্ত্রী রতন লাল নাথ।
মন্ত্রী রতন লাল নাথ আরও জানান বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ১০৯ জন। হোম  কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে  ২৪৭ জন। মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৪ হাজার ৯১০ জনের। নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪ হাজার ৭৪২ জনের। তিন জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। তার মধ্যে দুই জন সুস্থ হয়ে  কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। বাকি ১ জন পশ্চিমবঙ্গের উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার সাথে থাকা অপর গাড়ি চালক  কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। গোমতী জেলায় ৭৬ জনকে চিহ্নিত করে রাখা হয়েছে। বাইখোরার দুই জনের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের চিহ্নিত করার কাজ চলছে। ২ মে বহিঃরাজ্য থেকে আসা ৫ জনের নমুনা পরীক্ষার পর বাকিদের প্রাতিষ্ঠানিক  কোয়ারেন্টাইনে নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। বহিঃরাজ্য থেকে যারা রাজ্যে আসছে তাদের কোথায় কি ভাবে রাখা যায় তা নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সচিব বৃহস্পতিবার কথা বলেন সকল জেলার জেলা শাসকদের সাথে।
সাংবাদিক সম্মেলনে মন্ত্রী রতন লাল নাথ জানান উচ্চ শিক্ষার জন্য রাজস্থানের কৌটাতে গিয়ে আটকে রয়েছে রাজ্যের ১২২ জন ছাত্র-ছাত্রী। তাদের সাথে রয়েছে অভিভাবকও। তাদেরকে রাজ্যে ফিরে আসার জন্য গাড়ির পাসের ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে রাজস্থান সরকারের নিকট চিঠি প্রেরন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সেই চিঠি রাজস্থান সরকারের কাছে পৌঁছে গেছে। আন্তরাজ্য চলাচল করার জন্য পাস রয়েছে। তার জন্য কন্ট্রোল রুমে ফোন করলে রাজ্য সরকার পাসের ব্যবস্থা করে দেবে। কিন্তু তার জন্য আবেদন করতে হবে সংশ্লিষ্ট নাগরিকদের। তার জন্য কিছু প্রয়োজনীয় নথী লাগবে। বহিঃরাজ্যে অবস্থানের সঠিক ঠিকানা ও ল্যান্ড মার্ক উল্লেখ করতে হবে আবেদন পত্রে। রাজ্যের স্থায়ী বাসিন্দা হিসাবে ঠিকানা দিতে হবে। এই সকল নথী পেলেই সহযোগিতা করবে সরকার।কিন্তু এই ক্ষেত্রে কিছু শর্ত রয়েছে। রাজ্যে আসলে তাদের কি কি করতে হবে সেই বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলে জানান আইন মন্ত্রী রতন লাল নাথ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য