About Me

header ads

আইসিএমআর দ্বারা অনুমোদিত হল ভারতে তৈরি প্রথম অ্যান্টিবডি টেস্টিং কিট!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ  দেশব্যাপী বাড়ি বাড়ি Covid-19 সমীক্ষা চালানোর উদ্দেশ্যে ভারতে তৈরি অ্যান্টিবডি টেস্টিং কিট বাজারে ছাড়ার লক্ষ্যে আরও এক ধাপ এগোল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)। জাইডাস-ক্যাডিলা দ্বারা প্রস্তুত এই প্রজাতির কিট-এর প্রথম ব্যাচ অনুমোদন পেল আইসিএমআর-এর।
টেস্ট কিট-গুলির নাম দেওয়া হয়েছে কোভিড কাভাচ এলিজা (Covid Kavach Elisa), এবং ভারতেই করোনা রোগীদের থেকে সংগৃহীত নমুনার থেকে ভাইরাসটি পৃথক করে নিয়ে এগুলি তৈরি হয়েছে পুণের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ভাইরোলজিতে।
আইসিএমআর-এর এক আধিকারিক জানিয়েছেন, এলিজা কিটগুলি স্বাস্থ্য মন্ত্রকের আসন্ন দেশব্যাপী সেরো-সারভেতে ব্যবহৃত হবে, যে সমীক্ষার উদ্দেশ্য হলো রোগমুক্ত ব্যক্তির দেহে অ্যান্টিবডির আবির্ভাবের লক্ষণ এবং তার উপস্থিতি চিহ্নিত করা। সমীক্ষার অঙ্গ হিসেবে দেশের ৬৯ টি জেলায় ২৪ হাজার মানুষকে পরীক্ষা করবে আইসিএমআর।
প্রসঙ্গত, অ্যান্টিবডি হলো শরীরের মধ্যেই জাত বিশেষ প্রোটিনজাতীয় পদার্থ যা কোনও ক্ষতিকারক পদার্থকে ধ্বংস বা নিষ্ক্রিয় করার জন্য তৈরি করে শরীর নিজেই।
আইসিএমআর-এর দাবি, এলিজা কিটগুলির প্রথম ব্যাচের সঠিক পজিটিভ টেস্ট চিহ্নিত করার হার ৯৮.৭ শতাংশ, এবং সঠিকভাবে নেগেটিভ টেস্ট চিহ্নিত করার হার ১০০ শতাংশ। একটি বিবৃতি জারি করে এই সংস্থা জানিয়েছে, জনসংখ্যার মধ্যে কী অনুপাতে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে, তা বুঝতে অ্যান্টিবডি টেস্ট-এর প্রহরা অত্যন্ত জরুরি। পাশাপাশি অবশ্যই থাকছে RT-PCR টেস্ট, যা SARS-CoV-2 অর্থাৎ করোনাভাইরাস নির্ধারণের ক্ষেত্রে বর্তমানে অগ্রগণ্য।
এর আগে ভারতে যে ধরনের অ্যান্টিবডি টেস্ট হতো, সেই তুলনায় অন্যরকম এলিজা অ্যান্টিবডি টেস্ট। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (World Health Organisation বা WHO) এলিজা-কে বলেছে অত্যন্ত স্পর্শকাতর এবং নির্দিষ্ট পরীক্ষা, যা প্রতিদিন বড় সংখ্যক নমুনা পরীক্ষা, এবং ব্লাড ব্যাঙ্ক, অথবা প্রহরাভিত্তিক গবেষণার ক্ষেত্রে উপযুক্ত
এই মুহূর্তে এই টেস্টিং কিটগুলি প্রস্তুত করার বরাত নিয়েছে একমাত্র জাইডাস-ক্যাডিলা, যদিও আইসিএমআর জানিয়েছে যে এই কিট বানাতে চেয়ে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে সিপলা প্রাইভেট লিমিটেড এবং নেক্সটজেন লাইফ সায়েন্সেস।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ