About Me

header ads

করোনা আক্রান্তদের রাজধানীর কোভিড-১৯ ট্রিটমেন্ট সেন্টারে স্থানান্তরিত করা হয়!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ শুক্রবার নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয় ৩০ জন। তাদের মধ্যে ২৫ জন ধলাই জেলার আমবাসার জওহর নগরস্থিত বিএসএফ ৮৬নং বাহিনীর সাথে যুক্ত। ৪ জন  বি এস এফ ১৩৮নং বাহিনীর সাথে যুক্ত। বাকি একজন ট্র্যাক ড্রাইভার।
শুক্রবার রাতে নতুন করে ৩০ জন করোনা আক্রান্তের বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। এইদিকে নতুন করে করোনা আক্রান্তদের শনিবার রাজধানীর ভগৎ সিং যুব আবাসের কোভিড-১৯ ট্রিটমেন্ট সেন্টারে নিয়ে আসা হয়। আমবাসার জওহর নগরস্থিত বিএসএফ ৮৬নং ও ১৩৮নং বাহিনীর ক্যাম্প থেকে এইদিন ৬টি এ্যাম্বুলেন্সে করে করোনা আক্রান্তদের ভগৎ সিং যুব আবাসের কোভিড-১৯ ট্রিটমেন্ট সেন্টারে নিয়ে আসা হয়।
তাঁদের নিয়ে আসার আগেই ভগৎ সিং যুব আবাসের কোভিড-১৯ ট্রিটমেন্ট সেন্টারে সকল ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। ট্রিটমেন্ট চত্বরে ছড়ানো হয় জীবাণু নাশক ঔষধ।এইদিকে নতুন করে করোনা আক্রান্তদের এইদিন আমবাসা থেকে আগরতলা নিয়ে আসার সময় মাঝ পথে একটি এ্যাম্বুলেন্স বিকল হয়ে যায়। ৩৬ মাইল এলাকায় জাতীয় সড়কে একটি এ্যাম্বুলেন্স বিকল হয়ে যাওয়ার ফলে সেই এ্যাম্বুলেন্সে থাকা করোনা আক্রান্তদের অন্য ৫টি এ্যাম্বুলেন্সে করে শেষ পর্যন্ত ভগৎ সিং যুব আবাসের কোভিড-১৯ ট্রিটমেন্ট সেন্টারে নিয়ে আসা হয়। করোনা আক্রান্তদের নিয়ে আসার পর এ্যাম্বুলেন্স গুলিকে সেনিটাইজ করা হয়। এ্যাম্বুলেন্স গুলির মধ্যে জীবাণু নাশক ঔষধ স্প্রে করা হয়। এখনো পর্যন্ত রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত ১৩৪ জন। তার মধ্যে দুই জন সুস্থ হয়ে ইতিমধ্যে বাড়িতে ফিরে গেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য