About Me

header ads

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় গ্রামীণ স্তর শক্তিশালী করার লক্ষ্যে মুখ্যমন্ত্রীর টেলিবার্তা!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ কোভিড-১৯ মোকাবিলায়, রাজ্যের গ্রামীণ এলাকাকে আরও শক্তিশালী করার জন্য বুধবার পঞ্চায়েত ও ভিলেজ কাউন্সিল স্তরের সচিবদের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। প্রত্যেককে নিজেদের  এলাকায়, উপযুক্ত স্থানে, যাবতীয় ব্যবস্থা সহ একটি করে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন চালু করার জন্য নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। স্থানীয় সরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবার তত্বাবধানে থাকবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন সেন্টারটি।
কোভিড-১৯ মোকাবিলার ক্ষেত্রে গ্রামীণ স্তরে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশা ব্যক্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। এই পরিস্থিতিতে প্রশাসনিক কর্মীরা যে ভাবে কাজ করছেন তার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন মুখ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যেই রাজ্যস্তর ও জেলা পর্যায়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে। তা তদারকির জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। যেখানে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার হবে যেখানে প্রতিনিয়ত সাফাই করার বিষয়টি দেখবে দপ্তর। বিদ্যুৎ, জলের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। কোন ধরনের উপসর্গ কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকা ব্যক্তিদের মধ্যে দেখা দিলে সিএমও বা মহকুমা শাসকের নজরে নেওয়ার জন্য বার্তা দেন তিনি। রাজ্য সরকার প্রদেয় নির্দেশিকা গুলি গ্রাম ও শহরের বিভিন্ন স্থানে কঠোর ভাবে লাগু করার বিষয়ে বিশেষ বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী।
বহিঃ রাজ্য থেকে মানুষজন আসছে। কিন্তু তাদের মধ্যে করোনা সংক্রমণ মিলছে। সেই দিকে নজর রেখে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বহিঃ রাজ্য থেকে আগত সকলকে। পঞ্চায়েত এলাকায় সচিবরা এই ক্ষেত্রে প্রধান্য দিয়ে জন প্রতিনিধিদের সঙ্গে কাজ করবে বলে নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। আরডি দপ্তরের মত স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে প্রতিদিনের রিপোর্ট নেওয়া হবে।
কোয়ারেন্টনে না থাকলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে আইনগত ভাবে। সরকার এই বিষয়ে কোন ছাড় দেবেনা বলে বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী। সমস্যা হলে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা ক্রমে তা দূর করার জন্য বলেন তিনি।এদিন মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন রাজনীতিতে লোক এসেছে জনসেবা করার জন্য। পয়সা রোজগারের জন্য নয়। ৫৬ টি ব্লকের কাজ কর্ম ক্ষতিয়ে দেখতে সহসাই জাবেন বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। এই ক্ষেত্রে ব্লক গুলিতে কোন ধরনের দুর্নীতি বরদাস্ত করা হবে না। সেই দিকে সমস্ত পঞ্চায়েত সমিতির সচিবদের নজর রাখতে হবে। টুয়েপ সহ অন্যান্য প্রকল্প গুলির কাজ দ্রুত শুরু করার নির্দেশ দেন তিনি। শহর এলাকা সহ নিজ নিজ এলাকা স্বচ্ছ রাখার আহ্বান জানান মুখ্যমন্ত্রী।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য