About Me

header ads

করোনাতঙ্কে একাংশ মানুষের অমানবিক আচরণ!


ডেস্কও ব্যুরোঃ করোনাতঙ্কে একাংশ মানুষের অমানবিক আচরণের শিকার সাধারণ মানুষ। বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করা হল ভাড়াটিয়া রিক্সা চালককে। সেই উচ্ছেদ হওয়া রিক্সা চালক আশ্রয় নেয় রাজধানীর পুরান মোটরস্ট্যান্ড এলাকায়।
দোকানের সামনে বসে থাকতে দেখে খবর দেওয়া হয় পুলিশে। ছুটে যায় পূর্ব থানার পুলিশ। দোকানের সামনে আশ্রয় নেওয়া ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলেন তারা। পড়ে তাকে সেখান থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।
ভাড়াবাড়ী থেকে বিতারিত পেশায় রিক্সা শ্রমিক বলে দাবি করা মহম্মদ বুরফান উদ্দিন জানান তিনি রানীরবাজার থানার অন্তর্গত একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তার আগের বাড়ি ছিল ধর্মনগর। কিন্তু পিতা- মাতার মৃত্যুর পর সেই সম্পত্তি বিক্রি করে দিয়ে তিনি রাজধানীতে চলে আসেন। দিন মজুরের কাজ করতেন। ইতিমধ্যে বনিক্য চৌমুহনী এলাকায় বিয়ে করেন। কিন্তু শ্বশুর বাড়ির সঙ্গে ঝামেলা হয় স্ত্রীকে নিয়ে। সেই সংক্রান্ত মামলা চলছে তাদের। তাই শ্বশুর বাড়িতে যান না।
বিগত কয়েক বছর যাবৎ শহরে রিক্সা চালিয়ে জীবন যাপন করছেন। আর রানীরবাজার এলাকায় ভাড়া থাকেন। প্রথমে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে থাকলেও, পরবর্তী সময়ে একাই থাকতেন। লক ডাউনের পর সেই ভাড়া বাড়িতে ছিলেন কিছু দিন। এর মধ্যে বাড়ির মালিক জানান তার বাড়িতে এতজনকে রাখা যাবেনা। সেই নির্দেশিকা দিয়ে ঘর খালি করতে বলেন বাড়ির মালিক। শেষ পর্যন্ত বাড়ি ছেড়ে দেন মহম্মদ বুরফান উদ্দিন। বিগত চার দিন যাবৎ শহরেই রয়েছেন। এই অবস্থায় কি করবেন ভেবে পাচ্ছেন না।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য