About Me

header ads

১০৩২৩ ইস্যুতে সরকার আন্তরিক বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী রতন লাল নাথ!


ডেস্কও ব্যুরোঃ ১০,৩২৩ এডহক শিক্ষকদের চাকুরি চলে যাওয়ার ফলে সবচেয়ে বেশি অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে শিক্ষা দপ্তরকে। কারন হঠাৎ করে ৮ হাজার ৮৮২ জন শিক্ষক চলে যাওয়ার ফলে এক অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। একমাত্র করোনার কারনে বিদ্যালয় গুলি বন্ধ থাকার ফলে অসুবিধাটা কেউ বুঝতে পারছে না।
চাকুরি হারানো এডহক শিক্ষকদের ক্ষেত্রে রাজ্য সরকার অত্যন্ত মানবিক। রাজ্য সরকার মন্ত্রীসভায় সিদ্ধান্ত নিয়ে, এই ৮,৮৮২ জনকে চাকুরির ক্ষেত্রে যুক্ত করা যায় সুপ্রিমকোর্টে স্পেশাল পিটিশন দাখিল করা হয়েছে। বর্তমানে সুপ্রিমকোর্ট বন্ধ। কিন্তু রাজ্য সরকার ই-মেইলে একটি পিটিশন দাখিল করেছে। তা অপেক্ষমাণ তালিকায় রয়েছে। সরকারের বিশ্বাস সুপ্রিমকোর্ট বিষয়টি বিবেচন করে মানবিকতার সাথে বিষয়টি দেখবে।
সরকার অশিক্ষক যে শূন্যপদ গুলি রয়েছে সেগুলি পূরণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। এখন সুপ্রিমকোর্টের রায়ের অপেক্ষায় রয়েছে সরকার। বর্তমান রাজ্য সরকার এডহক শিক্ষকদের চাকুরি থেকে বাদ দেওয়ার পক্ষে নয়। কিন্তু হাইকোর্ট, সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশের বাইরে কেউই চলতে পারে না।
বর্তমানে দেশের অবস্থা ভালো নয়। করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তা আতঙ্কের বিষয়। তথাপি রাজ্য সরকার মন্ত্রীসভার বিশেষ বৈঠক করে চাকুরি হারানো ৮,৮৮২ জন শিক্ষক শিক্ষিকাকে ৩৫ হাজার টাকা করে প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। যাতে করে লক ডাউন চলাকালিন সময় তারা চলতে পারে। এ থেকে বোঝা যায় বর্তমান রাজ্য সরকার তাদের প্রতি কতটা আন্তরিক। সোমবার চাকুরি হারানো ৮ হাজার ৮৮২ জন শিক্ষকদের নিয়ে নিজের প্রতিক্রিয়ায় এমনটা  জানান শিক্ষা মন্ত্রী রতন লাল নাথ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য