About Me

header ads

আগরতলা পুর নিগমের সাংবাদিক সম্মেলন!

ডেস্কও ব্যুরোঃ এই সময় বৃষ্টি পাত কম হয়। তাই সেই বিষয়টি মাথায় রেখে আগরতলা পুর নিগম যে সমস্ত  কাজ অত্যন্ত জরুরী ভিত্তিতে করা প্রয়োজন তা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। অন্যথায় এই কাজ অর্ধ সমাপ্ত রাখলে বর্ষা পুরো দমে এলে রাস্তা ঘাটে জল জমে যাওয়ার প্রবণতা বেশী থাকবে। একই সঙ্গে ১০ হাজার মাস্ক তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আগরতলা পুর নিগম। তা বিক্রি করা হবে দশ টাকা দরে। এ এম সি কর্মী ও স্বাস্থ্য কর্মীদের কাছে এই মাস্ক পৌঁছে দেওয়া হবে।

শনিবার আগরতলা পুর নিগমের কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই কথা জানান মেয়র ডঃ প্রফুল্ল জিৎ সিনহা। টুয়েপের ক্ষেত্রে যে টাকা পাওয়া গেছে তার অর্ধেক খরচ করা হত নির্মাণের জন্য, বাকীটা শ্রম দিবসের জন্য। কিন্তু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে টুয়েপের পুরো টাকাটাই শ্রম দিবসের জন্য খরচ করা হবে। লক ডাউনের সময় সীমা শেষ হওয়ার পর এই কাজ শুরু হবে। স্প্রে করার বিষয়টি ধারাবাহিক ভাবে চালিয়ে যাবে আগরতলা পুর নিগম। গত ২৩ মার্চ থেকে এই উদ্যোগ শুরু হয়েছে। তৈরী করা খাবার পৌঁছে দেওয়া হয়েছে ১০০০ জনের কাছে। ৩৮২৪ জন বহিঃ রাজ্যের শ্রমিকের কাছে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়েছে। যে সমস্ত সাফাই কর্মী ও পুড় নিগমের কর্মী এই সময়ে কাজ করছেন তাদের অতিরিক্ত ১০০ টাকা করে প্রতিদিন প্রদান করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই টাকা পাবেন যারা বাড়ি বাড়ি থেকে আবর্জনা সংগ্রহ করছেন তারাও। ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত সুলভ বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবেন । যারা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টাকা দিতে পারেননি তাদের ফাইন ছাড়া ৩০ জুন পর্যন্ত জমা দিতে পারবেন।

যে সমস্ত স্থানে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে সেই জায়গায় বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সরকারের সহায়তায় এই সময়ে সমস্ত ধরনের সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে বলে জানান মেয়র ডঃ প্রফুল্ল জিৎ সিনহা।  ১০০০ টাকার বিনিময়ে বাড়ি ঘর ও প্রতিষ্ঠানে এই স্প্রে করাতে পারবেন বলে জানান তিনি। ছিলেন সাংবাদিক সম্মেলনে ছিলেন পুর নিগমের কমিশনার শৈলশ কুমার যাদব। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ