About Me

header ads

করোনা আক্রান্তদের ভারতে ঢোকানোর চেষ্টা করছে পাকিস্তানঃ গোয়েন্দা রিপোর্ট!

ডেস্কও ব্যুরোঃ করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করছে গোটা বিশ্ব। কারণ করোনা এখন বিশ্ব মহামারী। ভারত কিংবা পাকিস্তানও তার ব্যতিক্রম নয়। কিন্তু এর মধ্যেও জারি শত্রুতা? সীমান্ত দিয়ে ভারতে করোনা আক্রান্তদের ঢুকিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছে পাকিস্তান। সম্প্রতি এমনই এক বিস্ফোরক রিপোর্ট প্রকাশ্যে এসেছে।
জানা যাচ্ছে, নেপাল সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশ করানোর চেষ্টা চলছে বেশ কয়েকজন করোনা আক্রান্তকে। প্যারামিলিটারি ফোর্স ‘এসএসবি’র গোয়েন্দা বিভাগ এমনটাই দাবি করেছে।
ভারত-নেপাল ও ভারত-ভুটানের ২৪৫০ কিলোমিটার সীমান্ত পহারা দেয় এসএসবি। উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম, অসম, অরুণাচল প্রদেশের সঙ্গে রয়েছে নেপাল-ভুটানে সীমান্ত।
গোয়েন্দা বিভাগের তরফ থেকে বিহারের পশ্চিম চম্পারণ জেলার ডিএম ও বেটিয়ার পুলিশ সুপারকে এ ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে। বলা হয়েছে, কয়েকজন করোনা আক্রান্ত ভারতীয় মুসলিম নেপাল থেকে ভারতে ঢোকার চেষ্টা করছে। স্থানীয় প্রশাসনকে এ ব্যাপারে চিঠি দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।
জানা গিয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যে সমস্ত ভারতীয় মুসলিম নাগরিক কাজ করেন, এমন প্রায় ২০০ জনকে নেপাল সীমান্ত পার করিয়ে ভারতে ঢুকিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। যার মধ্যে পাকিস্তানে কর্মরত পাঁচ-ছ’জন ভারতীয় মুসলিমও রয়েছেন। ইতিমধ্যেই তাঁরা কাঠমাণ্ডুতে এসে পৌঁছেছে। বিভিন্ন মসজিদ ও মাদ্রাসায় আশ্রয় দেওয়া হয়েছে তাঁদের। শুক্রবারের মধ্যেই আরও ৪০-৫০ জন ভারতীয় মুসলিম এসে পৌঁছবে সেখানে। আগামিদিনে সেই সংখ্যা বাড়বে। এমনকী মনে করা হচ্ছে, এদের শরীরে করোনার জীবাণু রয়েছে।
আশঙ্কা করা হচ্ছে প্যারাসিটামল খেয়ে জ্বর কমিয়ে ভারতে ঢোকার চেষ্টা করছে তারা।
বিহারের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব আমি সুভানি বলেন, “নেপাল সীমান্ত পেরিয়ে এখনও কেউ ভারতে প্রবেশ করতে পারেনি। SSB জানিয়েছে, এমন একটা সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। আমরা পুলিশ প্রশাসন এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে খবর পৌঁছে দিয়েছি। কাউকেই সীমান্ত পেরতে দেওয়া হবে না।”

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য