About Me

header ads

কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের বর্ধিত ডিএ-তে কোপ অপ্রয়োজনীয়ঃ মনমোহন সিং!


ডেস্কও ওয়েব ডেস্কঃ দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির জেরে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীদের বর্ধিত ডিএ আগামী দেড় বছরের জন্য স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদী সরকার। যার সমালোচনার মুখর হলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের বর্ধিত ডিএ-তে কোপ অপ্রয়োজনীয় বলে জানান তিনি। কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর কথায়, আমি বিশ্বাস করি যে, এই পর্যায়ে সরকারি কর্মচারী ও সশস্ত্র বাহিনীকে অর্থকষ্টে ফেলার কোনও প্রয়োজনই ছিল না।
এর আগে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বলেছিলেন, করোনা রুখতে কেন্দ্রের সঙ্গে রাজ্যগুলিকে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করা উচিত। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্র-রাজ্য সমঝোতা খুবই জরুরি। কেন্দ্র ও রাজ্যগুলির পারস্পরিক সহযোগিতাই করোনা রোখার মূল চাবিকাঠি
গোটা দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। ভয়ঙ্কর এই ভাইরাস মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় কোষাগার থেকে বিপুল টাকা খরচ হচ্ছে। স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলির পরিকাঠামোগত উন্নয়ন, চিকিৎসক, নার্স-সহ স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা ও সর্বোপরি রোগী পরিষেবার মান বাড়াতে এই মুহূর্তে কেন্দ্রের খরচ বেড়েই চলেছে। দেশের এই পরিস্থিতিতে সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীদের বর্ধিত ডিএ আপাতত দেড় বছরের জন্য স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। জানানো হয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মী ও পেনশনভোগীদের ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২১-এর জুন পর্যন্ত দেড় বছরের বর্ধিত মহার্ঘ্যভাতা বা ডিএ দেওয়া হবে না।
বিজেপি সরকারের এই পদক্ষেপের সমালোচনা করেছেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধীও। কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীদের বর্ধিত ডিএ স্থগিতের সিদ্ধান্তকে অমানবিক অসংবেদনশীল বলে অখ্যায়িত করেন। বুলেট ট্রেন বা সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পের বদলে সরকারি অর্থ বাঁচিয়ে মধ্যবিত্ত ও পেনশনভোগীদের সুরাহায় কেন্দ্রের নজর দেওয়া উচিত বলে জানান তিনি।
চলতি বছরের মার্চ মাসে ৪ শতাংশ ডিএ (ডিয়ারনেস অ্যালাওয়েন্স) বাড়ানোর কথা ঘোষণা করেছিল কেন্দ্র। ফলে কেন্দ্র সরকারি কর্মচারীদের ডিএ বা মহার্ঘ্য ভাতা ১৭ শতাংশ থেকে বেড়ে ২১ শতাংশ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আপাতত সংকটকালীন পরিস্থিতিতে সেই বর্ধিত ভাতা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্ত ৪৯.২৬ লাখ কেন্দ্র সরকারি কর্মী ও ৬১.১৭ লাখ পেনশনভোগীর উপর প্রভাব পড়তে চলেছে। ৪ শতাংশ হারে বর্ধিত ডিএ চলতি বছরের ১লা জানুয়ারি থেকেই লাগু হত।
কেন্দ্রকে অনুসরণ করে বিভিন্ন রাজ্য সরকারও সরকারি কর্মী ও পেনশনভোগীদের দের ডিএ বৃদ্ধি স্থগিত রাখতে পারে বলে আশঙ্কা। এর ফলে রাজ্যগুলি কমবেশি ৮২,৫৬৬ কোটি টাকা বাঁচাতে পারবে বলে মনে করা হচ্ছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য