About Me

header ads

করোনা পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রসংঘের মন্তব্যের জোরালো বিরোধিতা দিল্লির!


ডেস্কও ব্যুরোঃ দেশে ক্রমবর্ধমান করোনা আক্রান্ত সংখ্যা, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। সেই আবহে রাষ্ট্রপুঞ্জের তকমা আঁটা মন্তব্যের বিরুদ্ধে এবার গর্জে উঠল ভারত। রাষ্ট্রসংঘের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে ভারতের প্রতিনিধিরা শনিবার বলেন যে, এই জাতীয় বিষয়গুলি দেখভালের জন্য ভারত সরকার, দেশের সুশীল সমাজ এবং দেশের নাগরিকরা রয়েছেন।
ইউনেস্কোর নির্বাহী বোর্ডে ভারতের প্রতিনিধি জে এস রাজপুত বলেন যে বর্তমান সময়ের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে বেশিরভাগ সংস্থাই অদক্ষ ও অযোগ্য। তবে পরবর্তী সময়ে ভারত তাদের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে রাজপুত বলেন, সম্প্রতি নীতি আয়োগের একটি বৈঠকে রাষ্ট্রসংঘের কোর্ডিনেটর রেনাটা লোক-ডেসালিয়ন একটি ইস্যু সামনে এনেছেন তা হল করোনায় ভারতে একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়কে লক্ষ্য করা হচ্ছে। এই মন্তব্য অত্যন্ত আপত্তিজনক।
জে এস রাজপুত এও বলেন যে রাষ্ট্রসংঘ এমন বিষয়ে কথা বলছে যা তাঁদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে না। তাঁরা জম্মু-কাশ্মীরের বিষয়ে কথা না বলে হঠাৎ মানবাধিকার লঙ্ঘনের মতো বিষয়গুলি নিয়ে কথা বলছেন। তিনি সাফ বলেন যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে ভারত নিজেই সক্ষম তাঁদের অভ্যন্তরীণ বিষয়গুলিকে যথাযথভাবে পরিচালনা করতে।
প্রসঙ্গত স্বাস্থ্য মন্ত্রকের জারি করা বিবৃতি অনুযায়ী দিল্লিতে তাবলিগি জামাতের সমাবেশের পরই দেশে করোনার বৃদ্ধি পায়। রাষ্ট্রসংঘের তরফে মনে করা হয়েছে এই বিবৃতি মুসলিমদের দিকেই সরাসরি অভিযোগ হানছে যা ভারতের মতো দেশে কাম্য নয়। যদিও রাজপুত বলেন, আমি নিশ্চিত যে করোনা ভাইরাস পরবর্তী বিশ্বে রাষ্ট্রসংঘের এজেন্সিগুলির ভূমিকা গুরুত্ব সহকারে এবং গভীরভাবে বিশ্লেষণ করা হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য