About Me

header ads

করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসক, দিল্লিতে বন্ধ হল হাসপাতাল !

করোনা সংক্রমণ নিয়ে দিল্লির নিজামউদ্দিন এলাকার ‘তবলিঘি জামাত’ ঘিরে উদ্বেগ বাড়ছে গোটা দেশ জুড়ে। এর মধ্যেই করোনায় আক্রান্ত হলেন দিল্লিরই এক সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক। তার জেরে দিল্লি স্টেট ক্যানসার ইনস্টিটিউট নামে ওই হাসপাতালটি বুধবার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শুরু হয়েছে হাসপাতালে জীবাণু নির্মূল করার প্রক্রিয়া। চিকিৎসকের সংস্পর্শে যাঁরা এসেছেন তাঁদেরও কোয়রান্টিনে পাঠানো হয়েছে।
গত কয়েক দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন দিল্লি স্টেট ক্যানসার ইনস্টিটিউটের এক মহিলা চিকিৎসক। লালারসের নমুনা পরীক্ষা করে জানা যায়, তাঁর দেহে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঘটেছে। এ খবর জানাজানি হতেই বন্ধ করে দেওয়া হয় ওই হাসপাতালটি। সেখানকার ওপিডি, অফিস ও ল্যাবরেটরি আপাতত বন্ধ রয়েছে। কী ভাবে করোনায় আক্রান্ত হলেন ওই চিকিৎসক? দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের সন্দেহ, ‘‘ওই চিকিৎসক তাঁর ইংল্যান্ড ফেরত ভাইয়ের থেকে করোনা সংক্রমিত হতে পারেন। তিনি তাঁর ভাইয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন।’’

এই মুহূর্তে দিল্লিতে শতাধিক ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে দু’জনের মৃত্যুও হয়েছে। সম্প্রতি মহল্লা ক্লিনিকের এক চিকিৎসক দম্পতিও ওই রোগে আক্রান্ত হন। মনে করা হচ্ছে, সৌদি আরব ফেরত এক রোগীর দ্বারাই ওই দম্পতি সংক্রমিত হয়েছেন। এর মধ্যেই উদ্বেগ বাড়িয়েছে দিল্লিতে নিজামউদ্দিন এলাকার ধর্মীয় সভা থেকে সংক্রমণের ঘটনাও।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য