About Me

header ads

অনামিকার মৃত্যু রহস্যের সুষ্ট তদন্তের দাবীতে এলাকাবাসীর ডেপুটেশন!

বিগত ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ইং সকালে ধর্মনগর শহরের পার্শ্ববর্তী পশ্চিম দেওয়ানপাশা গ্রামের ২নং ওয়ার্ডের এক নির্মীয়মাণ দালান বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় এক নাবালিকার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। নাবালিকার মৃতদেহ ঘিরে সন্দেহ দানা বাঁধে এলাকাবাসীর মনে, হত্যা না আত্মহত্যা তদন্তে নামে পুলিশ।

কিন্তু বিপত্তি বাঁধে সেখানেই যখন এলাকাবাসী দেখেন যে পীড়িতর পরিবারকে থানায় গেলে কোন সঠিক উত্তর দিতে ব্যর্থ ধর্মনগর মহিলা থানার ওসি স্বর্ণা দেববর্মা। তদন্তের নামে শুরু হয় ছেলে খেলা মৃত্যুর চার দিন অতিক্রান্ত হওয়া স্বত্বেও পুলিশ একবারের জন্যও ঘটনা স্থল পরিদর্শনে আসেনি এমন কি পরিবারে সাথে বা গ্রামবাসীর সাথে কোন যোগাযোগ করার সামান্য সদিচ্ছাও দেখাননি ওসি স্বর্ণা দেববর্মা ও উনার সহযোগীরা।

ধর্মনগর মহিলা থানার এহেন ভূমিকায় এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়, পরিস্থিতি বাগে আনতে উদ্যোগি হন পশ্চিম দেওয়ানপাশা গ্রাম পঞ্চায়েতের জন প্রতিনিধিরা, ২২ তারিখ সকাল ৮টায় উত্তর ত্রিপুরা জেলা আইন সেবা কর্তৃপক্ষের আইন সেবক শ্রী: গোপীকা কান্ত দত্ত’কে সাথে নিয়ে এক আলোচনা বৈঠকের আয়োজন করেন এবং এলাকাবাসী সুষ্ট ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের শাস্তির দাবিতে ধর্মনগর মহিলা থানার ওসি স্বর্ণা দেববর্মার নিকট ডেপুটেশন দেওয়ার উদ্যোগ নেন।

সেই মোতাবেক ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ইং সকাল ১১টা নাগাদ বিপুল সংখ্যক এলাকাবাসী ধর্মনগর মহিলা থানায় লিখিত ডেপুটেশন দিতে যান। এলাকাবাসীদের দেখেই ধর্মনগর মহিলা থানার ওসি স্বর্ণা দেববর্মা এলাকাবাসীর সাথে কোন কথা না বলেই তড়িঘড়ি থানা ছেড়ে বেরিয়ে চলে যান। এতে এলাকাবাসীর ক্ষোভের সঞ্চার হয়। অবশেষে পরিস্থিতি সামাল দিতে থানায় ছুটে আসেন ধর্মনগর মহকুমার পুলিশ আধিকারিক শ্রী: রাজীব সূত্রধর মহাশয়।

এলাকাবাসী ধর্মনগর মহকুমার পুলিশ আধিকারিক শ্রী: রাজীব সূত্রধর মহাশয়ের নিকট একরাশ ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং ধর্মনগর মহিলা থানার এহেন ভূমিকা ও তদন্ত প্রক্রিয়া নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সুষ্ট ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের শাস্তির দাবি করেন। ধর্মনগর মহকুমার পুলিশ আধিকারিক এলাকাবাসীদের সাথে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস দিলে এলাকাবাসী ফিরে আসেন।

সংবাদ মাধ্যমের সাথে বার্তালাপে এলাকাবাসী জানান যে যদি ধর্মনগর মহিলা থানা সুষ্ট ও নিরপেক্ষ তদন্ত না করেন তাহলে আগামী দিনে তাঁরা বৃহত্তর আন্দোলনে যাওয়ার কথা তুলে ধরেন।

যেখানে একের পর এক মহিলা সংক্রান্ত ঘটনায় উত্তর জেলা জুড়ে জনমনে ক্ষোভ বিরাজ করছে সেখানে ধর্মনগর মহিলা থানার এহেন ভূমিকা জনমনে নানান প্রশ্নের জানান দিচ্ছে।

Post a Comment

0 Comments