About Me

header ads

মাঠে নামার আগেই ‘হার’ কোহলির! ঐতিহাসিক রেকর্ড ছারখার ‘চিরশত্রু’র ব্যাটে!

অনেক লজ্জা, অবমাননা সহ্য করতে হয়েছে গত দেড় বছর ধরে। জাতীয় দলের নেতৃত্বও হারাতে হয়েছে। তবে অ্যাসেজে স্টিভন রজার স্মিথ প্রমাণ করে দিলেন তাঁর ব্যাটে এখনও মরচে পড়েনি। আগের মতোই ধারালো রয়েছে তাঁর ব্যাট। আর স্মিথের ব্যাট ঝলসে উঠল দলের সবথেকে খারাপ সময়েই। প্রথম দিন ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়া ইংল্যান্ডের পেসারদের সামনে একসময় ১২২-৮ হারিয়ে ধুঁকছিল। সেখান থেকেই স্বমহিমায় স্মিথের ব্যাট হাতে প্রত্যাবর্তন। তাঁর ১৪৪ রানের সৌজন্যেই স্কোরবোর্ডে অস্ট্রেলিয়া তুলল ২৮৪ রান।

শুধু ব্যাট হাতে ফেরাই নয়। স্মিথের ইনিংসে পিছনে পড়ে গেলেন স্বয়ং বিরাট কোহলিও। এজবাস্টনেই নিজের কেরিয়ারের ২৪তম শতরান পূর্ণ করে ফেললেন অস্ট্রেলীয় তারকা। আর শতরানে পৌঁছনোর সঙ্গে সঙ্গেই দ্রুততম ২৪ শতরানের নিরিখে তিনি পিছনে ফেললেন কোহলি ও শচীনকে। বিরাট কোহলি ২৪টি শতরান করতে ১২৩ ইনিংস নিয়েছিলেন। শচীন আবার ১২৫ ইনিংসে ২৪তম শতরানে পৌঁছেছিলেন।

১১৮ ইনিংসে ২৪ নম্বর সেঞ্চুরি গড়ে টেস্টের ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম ব্যাটসম্যান আপাতত স্মিথ। স্মিথের এই রেকর্ডের তালিকায় শীর্ষে যথারীতি স্যার ব্র্য়াডম্যান। মাত্র ৬৬ ইনিংসে ২৪তম সেঞ্চুরি করেছিলেন প্রবাদপ্রতিম ব্যাটসম্যান।
 
পাশাপাশি স্মিথ ছুঁয়ে ফেললেন গ্রেগ চ্যাপেল, ভিভ রিচার্ডস এবং মহম্মদ ইউসুফকেও। পরিসংখ্যান বলছেন, স্মিথের থেকে বেশি টেস্ট শতরান হাকিয়েছেন মাত্র ৬জন অস্ট্রেলীয়। যাইহোক, স্মিথের অ্যাসেজ রেকর্ড বরাবরই দুর্ধর্ষ। অ্যাসেজে এই শতরান স্মিথের নবম। অ্যাসেজে সেঞ্চুরির তালিকাতেও স্মিথের উপরে রয়েছেন ডন ব্র্যাডম্যান (১৯), স্যার জ্যাক হবস (১২) এবং স্টিভ ওয়া-র (১০)।

তারকা ব্যাটসম্যান দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বল বিকৃতি কাণ্ডে জড়ানোর পরে বারো মাস নির্বাসিত হয়েছিল। সেই সময় তিনি মাঝে খেলা ছেড়ে দেওয়ার কথাও ভেবেছিলেন। ক্রিকেট মাঠে ফেরা নিয়েই সংশয় ছিল তাঁর। তবে প্রত্যাবর্তনে রাজকীয় ইনিংস উপহার দিয়ে বিশ্বক্রিকেটের মন কেড়ে নিলেন তিনি।

Post a Comment

0 Comments