About Me

header ads

প্রলোভন দিয়ে শিশুকন্যা ধর্ষণের অভিযোগে এলাকায় চাঞ্চল্য!

জাম্বুরা খাওয়ানোর প্রলোভন দিয়ে এক শিশুকে জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ। ঘটনা কচুছড়া থানাধীন চানকাপ এলাকায়। অভিযুক্তর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের  কচুছড়া থানায়। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ অভিযুক্ত আশুতোষ পালকে গ্রেপ্তার করেছে। সামাজিক অবক্ষয়ের ফলে রাজ্যে সম্প্রতি শিশু ধর্ষণের ঘটনা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। শুধু মাত্র শিশু নয় এই ধর্ষণের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না শিশু থেকে বৃদ্ধ কেউই। এরই মধ্যে আবারো ধর্ষণের শিকার হল ৬ বছরের এক শিশু। ঘটনাটি মঙ্গলবার ঘটলেও। লোকলজ্জার কারনে ধর্ষিতার পরিবারের লোক থানার দ্বারস্থ হয়েছে শনিবার।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়। কচুছড়া থানাধীন চানকাপ এলাকার বাসিন্দা আশুতোষ পাল। বয়স আনুমানিক ২১ বছর। মঙ্গলবার সে তার পাশের বাড়ির এক শিশুকে জাম্বুরা খাওয়ানোর প্রলোভন দিয়ে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। বাড়ির অদূরে জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। পরে নির্যাতিতার মা ঘটনার দৃশ্য প্রত্যক্ষ করলে সে নির্যাতিতার মা-কে থানায় মামলা দায়ের না করার জন্য হুমকি দেয়। লোকলজ্জার কারনে নির্যাতিতার পরিবারের লোকজন বেশকয়েকদিন ধরে ঘটনা চেপে যায়।

অবশেষে শনিবার নির্যাতিতার বাড়ির লোকজন কচুছড়া থানায় এসে ঘটনার বিবরণ জানিয়ে অভিযুক্ত আশুতোষ পালের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। নির্যাতিতার বাবা এইদিন অভিযুক্তর শাস্তির দাবি করেন। পাশাপাশি সকল অভিভাবকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন। থানায় মামলা দায়ের হওয়ার পরই পুলিশ ঘটনার তদন্তে নামে। ঘটনার তদন্তক্রমে পুলিশ অভিযুক্ত আশুতোষ পালকে গ্রেপ্তার করে। মামলার তদন্তকারী অফিসার পদ্মসেন চাকমা জানান শনিবার মামলা নেওয়ার পর অভিযুক্ত কে চিহ্নিত করে রাতেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

রবিবার তাকে কমলপুর আদালতে সোপর্দ করা হবে বলে জানান তিনি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য বিরাজ করছে। বিভিন্ন মহল থেকে দাবি উঠেছে অভিযুক্তর কঠোর শাস্তির। যদিও সবকিছু নির্ভর করছে পুলিশের উপর। কারন পুলিশের দুর্বল তদন্তের ফলে বহু ক্ষেত্রে অভিযুক্ত আদালত থেকে ছাড়া পেয়ে যায়। স্বাভাবিক ভাবেই এখন দেখার পুলিশ কি ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

Post a Comment

0 Comments