About Me

header ads

কুলভূষণের সঙ্গে নির্ভয়ে সাক্ষাতের দাবি জানাল ভারত!

ইসলামাবাদের প্রস্তাব বিবেচনা করার পর ভারত পাকিস্তানকে বলেছে, প্রাক্তন নৌবাহিনী অফিসার কুলভূষণ যাদবের সঙ্গে নির্বিঘ্নে, কোনও রকম হুমকির আশঙ্কা ছাড়া তাঁর সঙ্গে দূতাবাসের অফিসারদের দেথা করতে দিতে হবে।

সূত্রের মতে, ভারতের তরফ থেকে পাকিস্তানকে বলা হয়েছে যাদবের সঙ্গে হুমকিহীন বাতাবরণে দূতাবাসের আধিকারিকদের সাক্ষাতের বন্দোবস্ত করতে। সূত্র জানিয়েছে, এ ব্যাপারে পাকিস্তানের উত্তর এখনও পাওয়া যায়নি।

একদিন আগেই ইসলামাবাদ জানিয়েছিল তারা কুলভূষণের সঙ্গে দূতাবাসের আধিকারিকদের দেখা করার সুযোগ দিতে চান।

পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র মহম্মদ ফয়জল বলেছিলেন, “আমরা ভারতীয় দূতাবাসকে জানিয়ে দিয়েছি শুক্রবার তাঁরা দেখা করতে পারবেন। ভারতের উত্তরের জন্য আমরা অপেক্ষা করছি।”

পাকিস্তান জানিয়ে দিয়েছিল, তারা কুলভূষণের কনসুলার অ্যাকসেস দেবে পাকিস্তানি আইন মোতাবেক।

পাকিস্তানের প্রস্তাবের জবাবে ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার বলেন, “আমরা পাকিস্তানের তরফ থেকে প্রস্তাব পেয়েছি। এখন আমরা সে প্রস্তাব আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের রাের সাপেক্ষে বিবেচনা করে দেখছি। আমরা পাকিস্তানকে কূটনৈতিক স্তরে এর উত্তর জানাব।”

২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে ৪৯ বছর বয়সী যাদবকে পাকিস্তানি সামরিক আদালত গুপ্তচরবৃত্তি ও সন্ত্রাসের দায়ের মৃত্যুদণ্ড ঘোষণা করে। এর পরেই ভারত আন্তর্জাতিক আদালতের শরণাপন্ন হয়।

গত ১৭ জুলাই হেগ-এর আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালত পাকিস্তানকে বলে যাদবের শাস্তি ও মৃত্যুদণ্ডের আদেশ পুনর্বিবেচনা করতে এবং তাঁকে অনতিবিলম্বে কনসুলার অ্যাকসেস দিতে। পাকিস্তান যে ভিয়েনা চুক্তি লঙ্ঘন করছে বলে ভারতের বক্তব্য ছিল তার সঙ্গে সহমত পোষণ করে ন্যায় আদালত।

প্রস্তাবিত কনসুলার অ্যাকসেসের শর্তাবলী অস্পষ্ট। সূত্রের মতে পাকিস্তানের সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে ইসলামাবাদে ভারতীয় কূটনীতিকদের একাধিক বিষয়ে আলোচনা হচ্ছে- তার মধ্যে রয়েছে, কতজন কুলভূষণের সাক্ষাৎকার নিতে পারবেন, কতক্ষণের জন্য আলোচনা চলবে, নিরাপত্তাকর্মীরা ছাড়া পাকিস্তানের সরকারি আধিকারিকরা সেখানে উপস্থিত থাকবেন কিনা এবং তাঁদের মধ্যে কাচের দেওয়াল রাখা হবে কিনা ইত্যাদি।

Post a Comment

0 Comments