About Me

header ads

রাহুল গান্ধীর কাছে কান্নায় ভেঙে পড়লেন কাশ্মীরি মহিলা!

রাহুল গান্ধীসহ বিরোধী নেতাদের শ্রীনগর থেকে ফিরিয়ে দেবার একদিন পর, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী একটি ভিডিও টুইট করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে নয়া দিল্লির বিমানে রাহুলের কাছে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন এক কাশ্মীরি মহিলা।

“যাঁরা বিরোধীদের দিকে বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি করার অভিযোগ তুলেছেন- কাশ্মীরে সমস্ত গণতান্ত্রিক অধিকার নিষিদ্ধ করে দেওয়ার চেয়ে বেশি রাজনৈতিক ও দেশবিরোধী আর কিছু হতে পারে না। আমাদের সকলের দায়িত্ব এর বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলা, আমরা সে কাজ করেই চলব।”
এই ভিডিওয় মহিলাকে কাঁদতে কাঁদতে বলতে শোনা যাচ্ছে, “আমাদের বাচ্চারা বাড়ির বাইরে বেরোতে পারছে না। আমার ভাইয়ের হার্টের অসুখ। সে ১০ দিন কোনও ডাক্তার দেখাতে পারেনি। আমরা বিপদে আছি।” ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, রাহুল ওই মহিলাকে সান্ত্বনা দেওয়ার চেষ্টা করছেন।

প্রিয়াঙ্কা তাঁর টুইটে লিখেছেন, “আর কতদিন এরকম চলবে? যে লক্ষ লক্ষ মানুষকে চুপ করিয়ে দেওয়া হয়েছে, জাতীয়তাবাদের নামে যাঁদের পিষে ফেলা হয়েছে, উনি তাঁদেরই একজন।”

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বাধীন বিরোধী দলগুলির ১২জনের একটি প্রতিনিধি দলকে শনিবার শ্রীনগর বিমানবন্দর থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। সমস্ত রাজনৈতিক নেতারা এ ঘটনার নিন্দা করেছেন। সিপিএমের পলিটব্যুরো একে দিনেদুপুরে অধিকার ছিনাই বলে অভিহিত করেছে।

কংগ্রেসের পোস্ট করা এক ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে রাহুল গান্ধী তাঁদের আটকে দেওয়া আধিকারিকদের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলছেন। “রাজ্যপাল বলেছেন আমি আমন্ত্রিত। সে জন্য আমি এসেছি। এবার আপনারা বলছেন আমি যেতে পারব না। সরকার বলছে এখানে সব ঠিক আছে, সব স্বাভাবিক চলছে। যদি সব স্বাভাবিক চলে, তাহলে আমাদের যেতে দেওয়া হচ্ছে না কেন?”

বিরোধী নেতাদের শ্রীনগর বিমানবন্দর থেকে ফিরিয়ে দেওয়ার ঘটনা নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে রাজ্য সরকারের মুখপাত্র রেহিত কানসাল জম্মু কাশ্মীর তথ্য ও জনসংযোগ বিভাগের একটি টুইট পড়ে শোনান। সেখানে বলা হয়েছে, “বরিষ্ঠ রাজনৈতিক নেতাদের উচিত নয় ক্রমশ স্বাভাবিক হতে থাকা জীবনযাত্রায় ব্যাঘাত ঘটানো। রাজনৈতিক নেতাদের সহযোগিতার অনুরোধ জানানো হচ্ছে এবং শ্রীনগরে আসতে নিষেধ করা হচ্ছে।”

Post a Comment

0 Comments