About Me

header ads

ইডি মামলায় চিদাম্বরমের জামিনের আবেদনের রায় ৫ সেপ্টেম্বর!

আইএনএক্স মিডিয়া সংক্রান্ত ইডি মামলায় চিদাম্বরমের জামিনের আবেদনের রায় মুলতুবি রাখল সুপ্রিম কোর্ট। আগামী ৫ সেপ্টেম্বর ওই রায় দেওয়া হবে। আদালত জানিয়েছে ইডিকে একটি বন্ধ খামে সমস্ত নথি জমা দিতে হবে।

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আদালতে জানিয়েছিলেন তিনি সোমবার পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতে থাকতে পারবেন। সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা বলেন, এই মেয়াদবৃদ্ধির বিষয়টি সিবিআই কোর্টের আওতাধীন। এর পর সে নিয়ে মন্তব্য করতে রাজি হয়নি সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ।

এ মামলার শুনানি চলাকালীন ইডির তরফ থেকে বলা হয় অর্থ পাচার সমাজ ও জাতির বিরুদ্ধে সংঘটিত অপরাধ এবং আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় চিদাম্বরমের হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি চায় তারা।

ইডির হয়ে সওয়ালকারী তুষার মেহতা শীর্ষ আদালতে বিচারপতি আর ভানুমতী ও এ এস বোপান্নার বেঞ্চকে বলেন “যে সমস্ত নথি সংগৃহীত হয়েছে তা এখনই দেখানো যাচ্ছে না কারণ সেক্ষেত্রে লেনদেনের যাবতীয় হিসাব মুছে ফেলার আশঙ্কা রয়েছে।”
 
মেহতা বলেন, “গ্রেফতারির আগে জামিনের পর্যায়ে কোনও নথি, সূত্র ও প্রমাণ দেওয়ার প্রয়োজন নেই।” সংবাদসংস্থা পিটিআই এ কথা জানিয়েছে।

তুষার মেহতা বলেন, “অর্থ পাচার সমাজ ও দেশের বিরুদ্ধে সংঘটিত একটি অপরাধ এবং পুরো ষড়যন্ত্র খোলসা করার অধিকার তদন্তকারী সংস্থার রয়েছে।”

ইডি চিদাম্বরমকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জেরা করতে চায় এ কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে তুষার মেহতা এও বলেন ইডি এ কাজ করতে চায় আগাম জামিনের সুরক্ষা ব্যতিরেকে। তিনি বলেন, (আইএনএক্স মিডিয়া মামলায়) “আমার কাছে ২০০৯-এর পরে এবং এমনকি আজও অর্থ পাচারের প্রমাণ রয়েছে।”

সংগৃহীত প্রমাণের উপর ভিত্তি করে অভিযুক্ত প্রশ্নোত্তরের সময়ে চতুরতার আশ্রয় নিয়েছেন কিনা তা খতিয়ে দেখার যে প্রস্তাব কপিল সিবাল দিয়েছেন, তাকে অযৌক্তিক বলে আখ্যা দেন তুষার মেহতা।

মেহতা বলেন শীর্ষ আদালতের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে বিজয় মালিয়া, নীরব মোদী, মেহুল চোকসি, জাকির নায়েক এবং অন্য়ান্য সন্ত্রাসে অর্থ জোগানের মামলাও।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য