About Me

header ads

গোমতী নদী থেকে উদ্ধার একটি শিশুর মৃত দেহ!

ফের সামাজিক অবক্ষয়ের ঘটনা উদয়পুরে। শনিবার গোমতী নদীর জলে এক মৃত শিশু ভাসতে দেখা যায় কাকরাবনে।  খবর দেওয়া হয় কাকরাবন থানায় পুলিশকে।

পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। হাসপাতালের চিকিৎসক জানান চার- পাঁচ মাসের একটি পুত্র সন্তানকে হাসপাতালে নিয়ে আসে দমকল কর্মীরা। হাসপাতালে আনার আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। ময়না তদন্ত করা হবে বলে জানান চিকিৎসক। আট থেকে ১০ ঘণ্টা আগে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক ধারনা চিকিৎসকের। শিশুটির পায়ে একটা জেল্কো পাওয়া গেছে। এর থেকে পরিস্কার শিশুটি কোন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ছিল। শিশুটির শরীরে কোন কিছু ওষুধ দেওয়া হচ্ছিল বলে জানান চিকিৎসক। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

এদিকে মৃত শিশুর পরিচয় জানা গেছে। গোমতী জেলা হাসপাতাল থেকে শিশুটিকে শুক্রবার রাতে জিবিতে স্থানান্তর করা হয়। সেই মোতাবেক শিশুটিকে নিয়ে পরিবারের ৩ জন সদস্য রওয়ানা হয়। কিন্তু আমতলী থানা এলাকায় পৌছুতেই মৃত্যু হয় শিশুটির। এরপর গাড়ি চালককে ফিরে যাওয়ার কথা জানায় পরিবারের সদস্যরা। তাদের পুনরায় গোমতী জেলা হাসপাতালের সামনে নিয়ে যায় গাড়ির চালক। সেখান থেকে অটোতে করে চলে যান তারা। এই বিষয়ে জানিয়েছেন গাড়ির চালক। দেবীপুরের বাসিন্দা জোসেফ রিয়াং এর পুত্র সন্তান মৃত শিশুটি। মৃত শিশুটির নাম জেনাফ রিয়াং, বয়স ৩ মাস। গোমতী জেলা হাসপাতালের কাগজে স্পষ্ট লেখা রয়েছে শিশুটির নাম ও পিতার নাম। গাড়ির চালক শিশুটিকে দেখে এদিন শনাক্ত করেন।  সম্ভবত বাড়ি ফেরার পথে নদীর জলে শিশুটিকে ফেলে দিয়ে যায় পরিবারের সদস্যরা।

Post a Comment

0 Comments