About Me

header ads

আগামী এক বছর তসলিমা নাসরিন ভারতেই!

বাংলাদেশি লেখক তসলিমা নাসরিনের ভারতে থাকার অনুমতির মেয়াদ বাড়াল মোদী সরকার। ৩ মাসের পরিবর্তে তসলিমা নাসরিনকে আরও এক বছর ভারতে বসবাসের অনুমতি দিল অমিত শাহের মন্ত্রক। সুইডেনের নাগরিকত্ব পেয়েছেন বিতর্কিত এই লেখিকা। তবে ভারতে থাকতে তিনি বরাবরই পছন্দ করেন। ২০০৪ সাল থেকে ভারতে থাকার অনুমতি পেয়ে আসছেন তসলিমা নাসরিন। আরও এক বছর সেই অনুমতির মেয়াদ বাড়ায় আগামী বছরের জুলাই পর্যন্ত ভারতে থাকতে পারবেন এই লেখিকা।

উল্লেখ্য, তসলিমার ভারতে থাকার সমসয়সীমা ৩ মাস বাড়িয়েছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। কিন্তু ৩ মাসের সময়সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করে টুইটারে অমিত শাহের কাছে আর্জি রাখেন তসলিমা। টুইটে তসলিমা লেখেন, ‘‘ভারতে থাকার অনুমতির সময়সীমা বাড়ানোয় অমিত শাহজি আপনাকে ধন্যবাদ। কিন্তু ৩ মাস সময় বাড়ানোয় অবাক হয়েছি। আমি ৫ বছরের জন্য আবেদন করেছিলাম। কিন্তু একবছরের অনুমতি পেলাম। মাননীয় রাজনাথজি আশ্বাস দিয়েছিলেন আমায় যে, সময়সীমা বাড়িয়ে ৫০ বছর করা হবে। ভারতই আমার একমাত্র বাড়ি’’। গত ১৭ জুলাই এই টুইট করেন তসলিমা নাসরিন। সেই টুইটে সাড়া দিয়েই তসলিমার ভারতে থাকার সময়সীমা শাহের মন্ত্রক বাড়ালো বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহলের একাংশ।

প্রসঙ্গত, বিতর্কিত লেখনির জন্য বাংলাদেশ ছাড়তে হয়েছিল তসলিমা নাসরিনকে। ভারতে এলেও বিতর্কের মুখে পড়েন তসলিমা। বিশেষ করে কলকাতাতেই থাকতে চেয়েছিলেন তসলিমা।

Post a Comment

0 Comments