About Me

header ads

এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ এক মাস পিছিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট!

আসামের চূড়ান্ত জাতীয় নাগরিকপঞ্জী (এনআরসি) প্রকাশের সময়সীমা এক মাস বাড়িয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। মঙ্গলবার শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, আগামী ৩১ অগাস্টের মধ্যে এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করতে হবে। প্রসঙ্গত, এর আগে সুপ্রিম কোর্ট ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছিল। পাশাপাশি, খসড়া নাগরিকপঞ্জিতে জায়গা পাওয়া ২০ শতাংশ নাম ফের খতিয়ে দেখার যে আবেদন আসাম এবং কেন্দ্র সরকার করেছিল, তা খারিজ করে দিয়েছে আদালত।

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে শীর্ষ আদালতে বলা হয়েছিল, অসমের বাংলাদেশ সংলগ্ন জেলাগুলি থেকে এনআরসিতে ওঠা অন্তত ২০ শতাংশ নাম ফের খতিয়ে দেখা প্রয়োজন। অন্য কয়েকটি জেলাতেও তালিকায় ওঠা প্রায় ১০ শতাংশ নাম নিয়ে পর্যালোচনা জরুরি। এই আবেদনের বিরোধিতা করেছিল অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (আসু)-সহ একাধিক সংগঠন। তাদের অভিযোগ, এই আবেদন আসলে এনআরসি প্রক্রিয়াটি পিছিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা। রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারের আবেদনের পাল্টা আদালতের দারস্থ হয়েছিল ওই সংগঠনগুলি।

কেন্দ্র-রাজ্য সরকারের আবেদন খারিজ করে এদিন বিচারপতি আর এফ নরিম্যান ও প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বেঞ্চ জানায়, নতুন করে কোনও পর্যালোচনার প্রয়োজন নেই। কারণ ইতিমধ্যেই তালিকায় ওঠা প্রায় ২৭ শতাংশ নাম ফের খতিয়ে দেখা হয়ে গিয়েছে বলে শীর্ষ আদালতকে জানিয়েছেন আসামের এনআরসি কো-অর্ডিনেটর প্রতীক হাজেলা।

১৯ জুলাই এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করার ব্যাপারে এক মাসের অতিরিক্ত সময়সীমা চায় কেন্দ্র ও আসাম সরকার। সেদিনই সুপ্রিম কোর্টে এ ব্যাপারে আবেদন করে দুই পক্ষ। আবেদনে বলা হয়, বর্তমান বন্যার কারণে উদ্ভূত স্থানীয় পরিস্থিতির জেরে কয়েক লক্ষ নাম “ভুলবশত” এনআরসি তালিকায় ঢুকে পড়তে পারে। আসামের এনআরসি কো-অর্ডিনেটর প্রতীক হাজেলা সেসময় বলেন, ৩১ জুলাই অতিরিক্ত অন্তর্ভুক্তি ও চূড়ান্ত বর্জনের একটি সাপ্লিমেন্টারি লিস্ট প্রকাশ করা হবে, কিন্তু একেবারে চূড়ান্ত এনআরসি প্রকাশ করতে আরও এক মাস সময় লাগবে।

২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর মাঝরাতে আসাম এনআরসি-র প্রাথমিক তালিকা প্রকাশিত হয়েছিল। সে তালিকায় আবেদনকারী ৩.২৯ কোটির মধ্যে বাদ পড়েছিল ১.৯ কোটি নাম। পরবর্তীকালে এনআরসির গণনার কাজ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ না হওয়ার জন্যই চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের সময় ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। উল্লেখ্য, এর আগে ১ জুলাই এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের কথা ছিল। রেজিস্ট্রার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আসামে এনআরসির কাজ সম্পূর্ণ করার ডেডলাইন ৩০ জুন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য