About Me

header ads

দিল্লিতে মন্দিরে ভাঙচুর, বিজেপি-কে দুষল কংগ্রেস!

রাজধানীর দুর্গামন্দিরে ভাঙচুরের নিন্দা করে আইনশৃঙ্খলার প্রশ্নে বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুলল কংগ্রেস।

সোমবার পুরনো দিল্লির চাওরি বাজার এলাকায় একটি স্কুটার রাখা নিয়ে শুরু হওয়া বিবাদ সাম্প্রদায়িক আকার নেয়। এরপর স্থানীয় একটি দুর্গামন্দির ভাঙচুর করে একদল দুষ্কৃতি। উত্তেজনা যাতে ছড়িয়ে পড়তে না পারে, সেজন্য লাল কুঁয়া এলাকার নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। কংগ্রেসের শীর্ষ মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা মঙ্গলবার এই প্রসঙ্গে হিন্দিতে একটি টুইট করেন। তিনি লিখেছেন, “পুরনো দিল্লিতে একদল দুষ্কৃতির দ্বারা দুর্গামন্দির ভাঙচুরের ঘটনা অত্যন্ত লজ্জাজনক ও নিন্দাযোগ্য। দিল্লির আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র্রমন্ত্রী অমিত শাহের। ফলে এই ঘটনার যাবতীয় দায় বিজেপি সরকারের।” কোনও গুজব বা প্ররোচনার দ্বারা প্রভাবিত না হতে স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছে অনুরোধ করেছেন কংগ্রেস মুখপাত্র।

স্থানীয় সূত্রের খবর, গোলমালের সূচনা রবিবার রাতে। আশ মহম্মদ নামে বছর কুড়ির এক যুবক সঞ্জীব গুপ্ত নামে স্থানীয় এক বাসিন্দার বাড়ির সামনে স্কুটার দাঁড় করান। পেশায় খাবারের দোকানদার সঞ্জীব প্রতিবাদ করলে দুজনের মধ্যে বচসা শুরু হয়। এই ঘটনা সংক্রান্ত একটি ভিডিও নেট-দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, এক ব্যক্তিকে কয়েকজন মত্ত ব্যক্তি মিলে মারধর করছেন। দু-পক্ষের মধ্যে গাড়ি পার্ক করা নিয়ে বচসা চলছে।

পুলিশ সূত্রের খবর, এই ঘটনায় তিনটি পৃথক অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তার মধ্যে একটি করে অভিযোগ আশ মহম্মদ ও সঞ্জীব করেছেন, অন্যটি অজ্ঞাতপরিচয় কিছু ব্যক্তির বিরুদ্ধে দাঙ্গা-হাঙ্গামা করা ও জনগণের সম্পত্তি নষ্টের অভিযোগ।

স্থানীয় বাসিন্দা তথা সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার সাকিব বলেন, মহম্মদ এবং সঞ্জীব যখন থানায় গিয়েছিলেন, তখনই একদল লোক মন্দিরের সামনে জড়ো হয়ে তাণ্ডব শুরু করে। এরপরই এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়।

Post a Comment

0 Comments