About Me

header ads

ভারতীয় সেনার হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা!

পাক গুপ্তচরের নজর রয়েছে ভারতীয় সেনা আধিকারিকদের ওপর, এই আশঙ্কা থেকে ভারতীয় সেনা আধিকারিক সহ সমস্ত সেনাবাহিনীদের পরিবার সদস্যেদের হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।  নিরাপত্তা ভঙ্গ করার চেষ্টায় রয়েছে পাক চর এরকমই আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গত মাসেই ভারতীয় সেনাবাহিনী সদস্যদের হোয়াটসঅ্যাপ সহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য নির্দেশিকা জারি করা হয়। নতুন নীতি অনুযায়ী সেনাবাহিনীর সদস্যদের সোশাল মিডিয়া ব্যবহারে সংযত হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেনা আধিকারিক সম্পর্কে কোনো তথ্য শেয়ার না করার কড়া নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। তবে সেনা আধিকারিকদের বলা হয়েছে, প্রয়োজনে নিজেদের মধ্যে তাঁরা ছোট আকারের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ তৈরি করতে পারেন।

জনস্বার্থে কোনো তথ্য পোস্ট করার প্রয়োজন হলে তা করা যাবে। তবে কোনো এলাকা ভিত্তিক সন্দেহজনক কথোপকথন হোয়াটস‌‌‌অ্যাপের মাধ্যমে চালাচালি করা যাবে না। প্রয়োজনে সামরিক টেলিফোন ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

সেনাবাহিনী সূত্রে জানা যায়, এই পদক্ষেপে বিদেশী গোয়েন্দা সংস্থাগুলি সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলি ব্যবহার করে তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করে। সেনাবাহিনীর একাংশ মনে করছেন, এই পদক্ষেপ সমালোচনার মুখে পড়তে পারে।

অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা প্রায়ই এই গ্রুপ গুলিতে নিজেদের বক্তব্য রাখেন।

গতমাসে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ এবং মিলিটারি ইন্টেলিজেন্স লক্ষ্য করেছে, কিছু পাকিস্তানি চর ২০১৫ থেকে ১৮ সালের মধ্যে প্রায় ১০০ টি অফিসিয়াল সিস্টেম হ্যাক করেছে।

Post a Comment

0 Comments