About Me

header ads

বছর না ঘুরতেই বেহাল স্ট্যাচু অফ ইউনিটির গ্যালারি, দেখুন ভিডিও!

১৫৩ মিটারের উচ্চতায় স্ট্যাচু অফ ইউনিটির দর্শক গ্যালারিতে দাঁড়ালে বৃষ্টিতে ভিজে কাক হয়ে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা। শনিবার গুজরাট জুড়ে দক্ষিণ-পশ্চিমী বর্ষার তেজ যত বাড়ল, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরতে থাকল একটি ভিডিও, যাতে দেখা যাচ্ছে, জমে থাকা বৃষ্টির জলে সাবধানে পা ফেলছেন স্ট্যাচু দেখতে আসা মানুষজন, ছাদের ফুটো দিয়ে অঝোরে ঝরছে বৃষ্টির জল। উল্লেখ্য, সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের এই লৌহমূর্তির উচ্চতা ১৮২ মিটার। বিশ্বের উচ্চতম এই মূর্তির সাড়ম্বর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, গত বছরের ৩১ অক্টোবর।

দর্শক গ্যালারিতে এক একবারে ২০০ জন পর্যন্ত দাঁড়াতে পারেন, এবং খোলা গ্রিলের ফাঁক দিয়ে দেখতে পারেন নর্মদা নদীর অদ্ভুত সুন্দর দৃশ্য।
২,৯৮৯ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই মূর্তি বানাতে সময় লেগেছিল ৪২ মাস, বা সাড়ে তিন বছর। অক্লান্ত পরিশ্রম করেছিলেন ৩,৪০০ জন কর্মী, এবং ২৫০ জন ইঞ্জিনিয়ার। গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন ২০১৩ সালের অক্টোবর মাসে প্রকল্পটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন মোদী। এর আগে বিশ্বের উচ্চতম মূর্তি ছিল চিনের ‘স্প্রিং টেম্পল বুদ্ধ’।

নর্মদা জেলার সর্দার সরোবর বাঁধের কাছেই অবস্থিত স্ট্যাচু অফ ইউনিটি, রাজ্যের রাজধানী আহমেদাবাদ থেকে আন্দাজ ২০০ কিলোমিটার দূরে। এর উচ্চতা ১৮২ মিটার হওয়ার কারণ, গুজরাট বিধানসভায় অতগুলিই আসন রয়েছে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার, অর্থাৎ ২৫ জুন, গুজরাটে আনুষ্ঠানিকভাবে নিজের উপস্থিতি জানান দেয় দক্ষিণ-পশ্চিমী মৌসুমি বায়ু, যা সাইক্লোন বায়ুর প্রভাবে বিলম্বিত হয়।

Post a Comment

0 Comments