About Me

header ads

মহাজোটে ভাঙন! একলা চলার ডাক অখিলেশ-মায়াবতীর!

উনিশের লোকসভা নির্বাচনে মোদীবাহিনীকে পর্যদুস্ত করতে সব বিরোধিতা ভুলে একে অপরের হাত ধরে রাজনীতিতে ‘নজির’ করেছিলেন অখিলেশ-মায়বাতীরা। কিন্তু গেরুয়াঝড়ের দাপটে লোকসভার লড়াইয়ে কার্যত বেসামাল হয়েছে সপা-বসপার মহাজোট। ভোট মিটতেই সেই মহাজোটে চিড় ধরল। লোকসভা ভোটের খারাপ ফলের জেরে অখিলেশ যাদবের হাত ছেড়ে একলা লড়ার ডাক দিলেন বসপা সুপ্রিমো মায়াবতী। উত্তরপ্রদেশ উপনির্বাচনে একলা লড়াইয়ের কথা জানিয়েছেন সপার অখিলেশ যাদবও। তবে সপা-বসপার মহাজোটের ভাঙন ‘সাময়িক’ বলেই বর্ণনা করেছেন মায়াবতী। মহাজোটের ভাগ্য নির্ধারণ অনেকটাই নির্ভর করছে অখিলেশ যাদবদের পারফরম্যান্সের উপর। আগামী দিনে যদি সপা প্রধান রাজনৈতিক ভাবে সফল হন, তবেই আবার তাঁর সঙ্গে হাত মেলাবে বসপা, এমনটাই জানিয়েছেন মায়াবতী।

এ প্রসঙ্গে বসপা নেত্রী মায়াবতী বলেন, ‘‘লোকসভা ভোটে সপা ভাল ফল করেনি। যাদবরা একেবারেই দলকে সমর্থন করেননি। এমনকি, সপার কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বীরাও হেরে গিয়েছেন’’। এরপরই মায়াবতী বলেন, ‘‘যদি সপা প্রধান আগামী দিনে রাজনৈতিক ভাবে সফল হন, তাহলে আবার আমরা একসঙ্গে কাজ করব। কিন্তু তা যদি না হয়, তাহলে আমাদের আলাদা ভাবেই লড়া ভাল। সে কারণেই উপনির্বাচনে আমরা একলা লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি’’।

মহাজোটে ফাটল ধরলেও বুয়ার মুখে ভাতিজার প্রশংসা শোনা গিয়েছে এদিন। মায়াবতী বলেছেন, ‘‘যেদিন থেকে সপা-বসপা জোট হয়েছে, অখিলেশ যাদব ও তাঁর স্ত্রী ডিম্পল খুব সম্মান জানিয়েছেন আমায়। দেশের স্বার্থে সব মতপার্থক্য সরিয়ে আমিও ওঁদের সম্মান জানিয়েছি। আমাদের সম্পর্ক শুধুমাত্র রাজনৈতিক নয়। এই সম্পর্ক বজায় থাকবে’’। অন্যদিকে, মায়াবতীর এহেন সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে সপা নেতা অখিলেশ যাদব বলেন, ‘‘যদি মহাজোট ভেঙে যায়, তাহলে ১১টি আসনে সপা একাই লড়বে’’।

উল্লেখ্য, লোকসভা নির্বাচনের আগে একে অপরের হাত ধরেছিল সপা-বসপা। অখিলেশ-মায়াবতীদের জোটে ছিল আরএলডি। কিন্তু উত্তরপ্রদেশে মাত্র ১৫টি আসন জিতেছে মহাজোট। যার মধ্যে সপা জিতেছে ৫টি আসনে, বসপার ঝুলিতে রয়েছে ১০টি আসন। আরএলডি একটা আসনও জিততে পারেনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য