About Me

header ads

সভ্যসমাজের অমানবিকতা দেখা গেল কমলপুর মহকুমায়!

আবারো কলঙ্কিত ঘটনা ঘটলো এই ভদ্র সমাজে। সদ্যজাত শিশু কন্যাকে ফেলে দিয়ে চলে গেল তার অচেনা আত্মীয় পরিজনরা।

ঘটনার বিবরণে জানা যায় বৃহস্পতিবার কমলপুর মহকুমার আভাঙ্গা ফিশারি এলাকায় এক সদ্যজাত শিশুর কান্না শুনতে পায় এলাকাবাসীরা। সঙ্গে সঙ্গে এলাকাবাসীরা এগিয়ে আসলেও কেউ শিশুকন্যাটিকে হাত দিতে যায়নি। কিছুক্ষণ পর এই রাস্তা দিয়ে এক পুলিশ কর্মী যাচ্ছিল। সেই সময় তার নজরে আসে এই ঘটনাটি।

তৎক্ষণাৎ এলাকাবাসীর সহযোগিতায় এই পুলিশ কর্মী শিশুটিকে সালেমা প্রাথমিক হাসপাতলে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে এই শিশুটিকে কুলাইস্থিত ধলাই জেলা হাসপাতাল স্থানান্তরিত করে। সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশ কর্মী বিশ্বজিৎ বাবু এবং অন্য একজন মহিলা মিলে এই শিশুটিকে জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে এই শিশুকন্যাটির।

একজন মহিলা জানায় স্নান করতে গিয়ে কান্না শুনে তিনি দেখতে পান একটি শিশু কাপড় দিয়ে মোড়া অবস্থায় এখানে পড়ে রয়েছে, সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশকর্মী সহযোগিতায় তারা শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতাল থেকে জানা যায় শিশুটি মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে জন্ম নিয়েছে। অনেকেরই অভিমত কন্যা সন্তান বলে এই শিশুটিকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

আবারো এই সভ্য সমাজে এক কলঙ্কজনক অধ্যায় দেখল ধলাইবাসী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে সালেমা থানার পুলিশ এসে একটি মামলা নিয়ে ঘটনার তদন্তে নেমেছে। এলাকাবাসী অভিমত সুষ্ঠু তদন্ত হলে বেরিয়ে আসতে পারে আসল রহস্য।

Post a Comment

0 Comments