About Me

header ads

কুইন্ট কর্ণধারের বিরুদ্ধে অর্থ তছরূপের অভিযোগ, সক্রিয় ইডি!


অর্থ তছরূপ এবং অঘোষিত বৈদেশিক সম্পদ রাখার অভিযোগে কুইন্ট নিউজ পোর্টাল এবং নেটওয়ার্ক এইটিনের প্রতিষ্ঠাতা রাঘব বহেলের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। সম্প্রতি আয়কর বিভাগ বহেলের নামে ব্ল্যাক মানি (আনডিক্লেয়ার্ড ফরেন ইনকাম অ্যান্ড অ্যাসেটস) অ্যাক্টে চার্জশিট দাখিল করেছিল। তার ভিত্তিতেই ইডি-র এই পদক্ষেপ। আয়কর বিভাগের অভিযোগ, বহেল সরকারকে না জানিয়ে লন্ডনে বিপুল সম্পত্তি কিনেছেন। বহেল অবশ্য অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন।

ইডি সূত্রের খবর, এই ঘটনায় ‘প্রিভেনশন অফ মানি লন্ডারিং অ্যাক্টে’র আওতায় একটি এনফোর্সমেন্ট কেস ইনফরমেশন রিপোর্ট’ দাখিল করা হয়েছে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই-এর কাছে বহেল ইডি-র পদক্ষেপের সত্যতা স্বীকার করে নিয়েছেন। তাঁর দাবি, তিনি কর জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে কখনওই কোনও অসৎ পন্থা অবলম্বন করেন নি। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন এবং ইডি কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো চিঠিতে বহেল জানিয়েছেন, তিনি কখনওই কর ফাঁকি দেন নি বা প্রদেয় ঋণ বাকি রাখেন নি। ট্যাক্স রিটার্নের ক্ষেত্রে তিনি এবং তাঁর স্ত্রী সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা বজায় রেখেছেন বলে ওই চিঠিতে দাবি করেছেন বহেল। তাঁর আরও দাবি, ইতিমধ্যেই তিনি এই বিষয়ে এলাহাবাদ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন।

অর্থমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে বহেল এই ঘটনায় তাঁর হস্তক্ষেপের জন্য অনুরোধ করেছেন। তাঁর কথায়, “আমি নিজের জন্য আপনার হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করছি না। আমি চাই, অর্থ তছরূপকারী এবং কালো টাকার কারবারিদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক। নির্দোষ ব্যক্তিদের বিনা কারণে হেনস্থা করে বিষয়টি যেন লঘু করে দেওয়া না হয়।” তাঁর অভিযোগ, প্রকৃত দোষীদের চিহ্নিত না করে অকারণ নির্দোষ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বিচারবিভাগের মূল্যবান সময় নষ্ট করার প্রচেষ্টা দুর্ভাগ্যজনক।

Post a Comment

0 Comments