About Me

header ads

বিভ্রান্ত কর ও ব্যক্তি আক্রমণ করে সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান মুখ্যমন্ত্রী।

বিভ্রান্ত কর ও ব্যক্তি আক্রমণ করে সংবাদ পরিবেশন না করার বিষয়ে গুরুত্ব সহকারে দেখার জন্য আহ্বান জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

রবিবার আগরতলা প্রেস ক্লাবে ত্রিপুরা জার্নালিস্ট ইউনিয়নের রাজ্য সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই কথা বলেন তিনি। সম্মেলন শেষে গঠিত হয়েছে নতুন কমিটি। রাজ্যে নতুন সরকার ক্ষমতায় এসেছে ১৫ মাস হয়ে গেছে। সরকারের ত্রুটি বিচ্যুতি গুলি রাজ্য বাসীর সামনে তুলে ধরে সংবাদ মাধ্যম গুলি । একই সঙ্গে কাজের বিষয় গুলিও উত্থাপন করেন তারা। ইতিমধ্যেই সাংবাদিকদের জন্য একাধিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যমের সাংবাদিক জন্য এক্রিডিয়েশন কার্ড চালুর জন্য শীঘ্রই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। প্রেস ক্লাবের সংস্কারের জন্য অর্থ রাশি দিচ্ছে সরকার। প্রেস ক্লাবে বাতানুকূল যন্ত্র বসানোর জন্য পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

রবিবার আগরতলা প্রেস ক্লাবে ত্রিপুরা জার্নালিস্ট ইউনিয়নের রাজ্য সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। বিভ্রান্ত কর সংবাদ পরিবেশন না করার আহ্বান জানান তিনি। ব্যক্তি আক্রমণ করে সংবাদ পরিবেশন না করার বিষয়েও গুরুত্ব সহকারে দেখার আহ্বান জানান মুখ্যমন্ত্রী। সরকার সাকারাত্মক ভাব মূর্তি নিয়ে কাজ করতে চায় । পুরো ব্যবস্থাই সাকারাত্মক হওয়া উচিৎ। যারা  বিভ্রান্তি তৈরি করে তাদের বিষয়ে লোক ভাল করে জানে । তাঁর পরিনাম ২০১৮ সালের ৩ মার্চের ফলাফলে স্পষ্ট। বুদ্ধিজীবী হতে গেলে ঐ মার্গিয় লোকেদের কাছ থেকে অনুমোদন নিতে হয়। এর অবসান হয়েছে। এখন তাদের কাছ থেকে অনুমোদন নিতে হয় কর্মসংস্কৃতির মাধ্যমে জনগণের কাছ থেকে। কাজের মূল্যায়ন শুরু হয়েছে । এই কাজের ব্যবস্থা প্রতি তিন মাস পর পর পর্যালোচনা করা হবে। কাজের পারদর্শিতা আনার জন্য এই পর্যালোচনা বৈঠকের মধ্য থেকে কাজের মূল্যায়ন করলে ভুল বেড়িয়ে আসে। প্রধানমন্ত্রী ও কাজের মূল্যায়ন করছেন। তাতে সময়ের মধ্যে কাজ শেষ হচ্ছে। ভুল ত্রুটি বেড়িয়ে আসছে। এটাই বাকী দল গুলির সঙ্গে নরেন্দ্র মোদীর বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

১৯৪৭ সালে দেশ স্বাধীন হয়েছে , অথচ আজ পর্যন্ত মাত্র ৮ শতাংশ বৃষ্টির জল ধরে রেখে কাজে লাগানো হচ্ছে। এই ক্ষেত্রে ২০ বছর আগে উদ্যোগ নিলে এই সমস্যা এত সমস্যা হত না। ব্যক্তি গত মত পার্থক্য থাকতেই পারে কিন্তু সবার সাথে সবার বিকাশ ও বিশ্বাস প্রয়োজন বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। স্যাকুলারেজিমের নামে যারা রাজনীতি করত তাদের যোগ্য জবাব দিয়েছে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলে জানান তিনি।অন্যদিকে বক্তব্য রাখতে গিয়ে আইনমন্ত্রী রতন লাল নাথ বলেন একটা রাজ্যের উন্নয়ন, অগ্রগতি এবং গনতন্ত্রটিকে থাকে চারটা পিলারের উপর। এগুলি হল গনতন্ত্রের চারটি স্তম্ভ।   এর মধ্যে কোন একটা দুর্বল হলে রাজ্যের ক্ষতি হবে। উন্নয়ন ব্যহত হবে বলে জানান তিনি। দীর্ঘ দিন রাজ্য বিধানসভায় রয়েছেন। কিন্তু রাজ্যে নতুন সরকার প্রতিষ্ঠার পর এই প্রথম চারটি স্তম্ভ এক সঙ্গে মিলে মিশে কাজ করছে। সহজোগিতার মাধ্যমে এক ত্রিপুরা শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা বানানোর জন্য এগিয়ে চলেছে। সাংবাদিকরা জাতির মুখ এবং মুকুটহীন সম্রাট বলে জানান আইনমন্ত্রী রতন লাল নাথ।

এই দিনের সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী জায়া নীতি দেব, প্রেস ক্লাবের সভাপতি সুবল কুমার দে, সম্পাদক প্রনব সরকার সহ অন্যান্যরা। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত  ত্রিপুরা জার্নালিস্ট ইউনিয়নের  সদস্য- সদস্যারা এই সম্মেলনে অংশ নেন। সম্মেলন শেষে দুই বছরের জন্য নতুন কমিটি গঠিত হয়।  এই কমিটির সভাপতি এবং সম্পাদক হিসাবে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন সাজ্জাদ আলী ও প্রনব সরকার।   

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য